বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ডানকুনি: ক্রেতা সেজে সোনার দোকানে ভয়াবহ ডাকাতি, বন্দুক উঁচিয়ে লুঠপাট
ডানকুনিতে সোনার দোকানে ভয়াবহ ডাকাতি। 

ডানকুনি: ক্রেতা সেজে সোনার দোকানে ভয়াবহ ডাকাতি, বন্দুক উঁচিয়ে লুঠপাট

  • সিসি ক্যামেরার ফুটেজে দুষ্কৃতীদের ছবি ধরা পড়েছে। বাইকে চেপে এসেছিল তারা। এরপর ভেতরে ঢোকে। আগে থেকেই বসেছিল দুজন দুষ্কৃতী।

বৃহস্পতিবার দুপুরে ডানকুনিতে একেবারে ব্যস্ততম রাস্তায় সোনার দোকানে ভয়াবহ ডাকাতি। ক্রেতা সেজে দোকানে ঢুকে বন্দুক দেখিয়ে লুঠপাট। গোটা ঘটনায় তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। কে বা কারা এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত তা পুলিশ খতিয়ে দেখছে। এদিকে সিসি ক্যামেরার অল্প ফুটেজ পাওয়া গিয়েছে। তাতেই দেখা যাচ্ছে দুষ্কৃতীরা দোকানের ভেতরে বন্দুক উঁচিয়ে কর্মী ও ক্রেতাদের ভয় দেখাচ্ছে।

সূত্রের খবর, দুজন দুষ্কৃতী আগে থেকেই ক্রেতা সেজে দোকানের ভেতরে বসেছিল। এরপর দুটি বাইক দোকানের সামনে এসে দাঁড়ায় সেই বাইকে মোট ৬জন আসে। তার মধ্যে পাঁচজন দোকানের ভেতরে ঢুকেছিল বলে মনে করা হচ্ছে। দোকানে ঢুকেই সিসি ক্যামেরার লাইন তারা কেটে দেয়। এরপরই চলে লুঠপাট। কিন্তু সেই লাইন খোলার আগে পর্যন্ত কিছু ফুটেজ পাওয়া গিয়েছে। সেখানে দেখা যাচ্ছে মুখ খোলা অবস্থাতেই বন্দুক উঁচিয়ে ভয় দেখাচ্ছে দুষ্কৃতীরা। 

ডানকুনি পুরসভার ১৫ নম্বর ওয়ার্ডের টিএন মুখার্জি রোডের উপর সোনার দোকান। সেখানেই  প্রখ্যাত স্বর্ণ অলঙ্কার প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানের শাখাতে চলে ডাকাতি। ঘটনার খবর পেয়েই ডানকুনি থানার পুলিশ বাহিনী ও চন্দননগর কমিশনারেটের আধিকারিকরা ঘটনাস্থলে এসে পৌঁছন। ঠিক কীভাবে হল এই ডাকাতি?

এক কর্মী জানিয়েছেন, ডাকাতরা একেবার শোরুমের মধ্যে ঢুকে পড়ে। এরপর লুঠপাট করে। স্থানীয় বাসিন্দাদের মতে, সোনার দোকানের সিকিউরিটি আরও বৃদ্ধি করা দরকার ছিল। অনেকের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়েছে।

বন্ধ করুন