বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ১০০ দিনের কাজের প্রকল্পে নিজের রিসোর্টের পাঁচিল গেঁথেছিলেন শান্তনু

১০০ দিনের কাজের প্রকল্পে নিজের রিসোর্টের পাঁচিল গেঁথেছিলেন শান্তনু

তৃণমূল নেতা শান্তনু বন্দ্যোপাধ্যায়।

তল্লাশি চলাকালীনই সাংবাদিকরা দেখতে পান, রিসোর্টের পাঁচিলের পাশে ১০০ দিনের কাজের ফলক। স্থানীয়দের প্রশ্ন করে জানা যায়, ১০০ দিনের কাজের প্রকল্পের নিজের রিসোর্টের পাঁচিল তুলেছিলেন শান্তনু। সরকারি প্রকল্পকে ব্যবহার করেছিলেন ব্যক্তিগত স্বার্থসিদ্ধিতে।

রাজ্যে ১০০ দিনের কাজে দুর্নীতির অভিযোগের অনুসন্ধানে শুক্রবারই পৌঁছেছে ২ সদস্যের কেন্দ্রীয় দল। তার পরদিনই নিয়োগ দুর্নীতির তদন্তে হুগলির বলাগড়ে বহিষ্কৃত তৃণমূল নেতা শান্তনু বন্দ্যোপাধ্যায়ের রিসোর্টে ইডির তল্লাশি চলাকালীন উঠে এল বিস্ফোরক তথ্য। স্থানীয়রা জানান, শান্তনুর রিসোর্টের পাঁচিল তৈরি হয়েছে ১০০ দিনের কাজের প্রকল্পে। ওদিকে যারা কাজ করেছেন, তাঁদের অভিযোগ টাকা এখনও পাইনি।

হুগলির বলাগড়ে গঙ্গার পাড়ে বেশ কয়েক বিঘা জমির ওপর শান্তনুর রিসোর্ট। শনিবার সেই রিসোর্টে হাতুড়ি দিয়ে তালা ভেঙে ঢোকে ইডি। সেখানে তল্লাশি চলাকালীনই সাংবাদিকরা দেখতে পান, রিসোর্টের পাঁচিলের পাশে ১০০ দিনের কাজের ফলক। স্থানীয়দের প্রশ্ন করে জানা যায়, ১০০ দিনের কাজের প্রকল্পের নিজের রিসোর্টের পাঁচিল তুলেছিলেন শান্তনু। সরকারি প্রকল্পকে ব্যবহার করেছিলেন ব্যক্তিগত স্বার্থসিদ্ধিতে। এমনকী যাঁরা কাজ করেছিলেন তাঁদের অভিযোগ, ওই কাজের টাকা এখনও পাননি তাঁরা। স্থানীয়দের দাবি, শান্তনুর ভয়ে এতদিন কিছু বলতে পারেননি।

বুধবার হুগলিতে শান্তনুর একাধিক ঠিকানায় তল্লাশি চালায় ইডি। তাতে এখনও তেমন কিছু উদ্ধার না হলেও শান্তনু ঘনিষ্ঠ এমন অনেকের সন্ধান পাওয়া গিয়েছে যাদের নামে বেনামি সম্পত্তি কিনতেন শান্তনু। এদিন তাদের কয়েকজনকে রিসোর্টে ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করেন ইডির গোয়েন্দারা।

 

বন্ধ করুন
Live Score