বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > তদন্তে দক্ষতার জন্য কেন্দ্রের মেডেল রাজ্য পুলিশের ৫ ও কলকাতা পুলিশের ২ আধিকারিক
মেডেলপ্রাপ্ত সাত পুলিশ আধিকারিকের মধ্যে শুক্লা সিনহা রায়, প্রদীপ পাল ও সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়, (ছবি সৌজন্য, পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ)
মেডেলপ্রাপ্ত সাত পুলিশ আধিকারিকের মধ্যে শুক্লা সিনহা রায়, প্রদীপ পাল ও সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায়, (ছবি সৌজন্য, পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ)

তদন্তে দক্ষতার জন্য কেন্দ্রের মেডেল রাজ্য পুলিশের ৫ ও কলকাতা পুলিশের ২ আধিকারিক

  • এবার দেশের মোট ১২১ জন তদন্তকারী অফিসারকে মেডেল দেওয়া হচ্ছে।

স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে রাজ্যের সাত পুলিশ আধিকারিককে পুরস্কৃত করল কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। তদন্তে অসামান্য দক্ষতার জন্য তাঁদের এই মেডেল দেওয়া হচ্ছে।

২০১৮ সাল থেকে প্রতি বছর দেশের সেরা তদন্তকারী অফিসারদের 'তদন্তে উৎকর্ষতার জন্য কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রীর মেডেল' দেওয়া হয়। বুধবার চলতি বছরের তালিকা প্রকাশ করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রক। সেই তালিকা অনুযায়ী, এবার দেশের মোট ১২১ জন তদন্তকারী অফিসারকে মেডেল দেওয়া হচ্ছে।

সবথেকে বেশি মেডেল গিয়েছে সেন্ট্রাল বুরো অফ ইনভেস্টিগেশনের (সিবিআই) ঝুলিতে। কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থার ১৫ জন অফিসার মেডেল পেয়েছেন। সর্বাধিক মেডেল পাওয়ার তালিকায় যুগ্মভাবে দ্বিতীয় স্থানে আছে মধ্যপ্রদেশ ও মহারাষ্ট্র পুলিশ। দু'রাজ্যের ১০ জন করে পুলিশ আধিকারিক পুরস্কৃত হয়েছেন। উত্তরপ্রদেশের পুলিশের আটজন মেডেল পেয়েছেন। 

কেন্দ্রের বিশেষ পুরস্কার পেয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের সাতজন পুলিশ আধিকারিক। তাঁরা হলেন - সুবীর কর্মকার (ইন্সপেক্টর), শুক্লা সিনহা রায় (ইন্সপেক্টর), ডেনিস অরূপ লাকরা (ইন্সপেক্টর), বিজয় কুমার যাদব (ইন্সপেক্টর), সুপ্রিয় বন্দ্যোপাধ্যায় (সাব-ইন্সপেক্টর), প্রদীপ পাল (সাব-ইন্সপেক্টর) এবং বর্ণালী সরকার (সাব-ইন্সপেক্টর)। তাঁদের মধ্যে শুক্লা সিনহা রায় ও ডেনিস অরূপ লাকরা কলকাতা পুলিশের কর্মরত।

মেডেলপ্রাপ্ত সাত পুলিশ আধিকারিক (ছবি সৌজন্য, পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ)
মেডেলপ্রাপ্ত সাত পুলিশ আধিকারিক (ছবি সৌজন্য, পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ)

এছাড়াও কেরালা পুলিশের সাত আধিকারিক বিশেষ পুরস্কার পেয়েছেন। তদন্তে অসামান্য দক্ষতা দেখানোয় অসম, ওড়িশা ও বিহারের চারজন করে পুলিশ আধিকারিকও কেন্দ্রের স্বীকৃতি পেয়েছেন। এবার মেডেল প্রাপকদের মধ্যে ২১ জন মহিলা তদন্তকারী অফিসার আছেন।

সেই পুরস্কার তালিকা প্রকাশের পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ বলেন, 'ন্যায়বিচার প্রদানের ক্ষেত্রে পূর্ণাঙ্গ তদন্ত একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। ২০২০ সালে তদন্তে উৎকর্ষতার জন্য মেডেল প্রাপকদের অভিনন্দন জানাচ্ছি। এটা আমাদের পুলিশ আধিকারিকদের অসামান্য কাজ এবং প্রতিজ্ঞার কাজ। ভারত তাঁদের উপর গর্বিত।'

বন্ধ করুন