বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Letter To PM: বিশ্বভারতীর উপাচার্যের বিরুদ্ধে চিঠি মোদীকে, শান্তিনিকেতন ট্রাস্টের নালিশ কেন?

Letter To PM: বিশ্বভারতীর উপাচার্যের বিরুদ্ধে চিঠি মোদীকে, শান্তিনিকেতন ট্রাস্টের নালিশ কেন?

বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী।

তাঁর বিরুদ্ধে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা চলছে। জমিজট বিতর্ক নিয়ে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনকেও অপমান করেন তিনি। এমনকী উপাসনা গৃহে বসে আশ্রমিকদের নিয়ে নানা সময় আক্রমণ করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। সদ্য বসন্ত উৎসব বন্ধ করে দিয়েছেন তিনি। বিশ্বভারতীতে যে উপাসনা গৃহ রয়েছে সেটা শান্তিনিকেতন ট্রাস্টের অধীনে।

কয়েকদিন আগে কেন্দ্রীয় শিক্ষামন্ত্রীকে চিঠি দেওয়া হয়েছিল উপাচার্যের বিরুদ্ধে। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিশ্বভারতীর অচলাবস্থা নিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি লিখেছিলেন। এবার শান্তিনিকেতন ট্রাস্ট উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে চিঠি লিখল প্রধানমন্ত্রীকে। সুতরাং বিতর্ক অব্যাহত বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যকে নিয়ে। আর উপাচার্য কয়েকদিন আগে রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসকে চিঠি লিখে নিজের নিরাপত্তার কথা জানিয়েছিলেন। তাঁর প্রাণনাশের আশঙ্কা আছে বলে চিঠিতে উল্লেখ করেছিলেন।

কেন উপাচার্যের বিরুদ্ধে চিঠি প্রধানমন্ত্রীকে?‌ অভিযোগ, বিশ্বভারতীর ঐতিহ্যমণ্ডিত উপাসনা গৃহে বসে রাজনৈতিক কথা বলেছেন উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী। যা আগে কখনও কোনও উপাচার্য করেননি। আর তাই নিয়ে ক্ষোভে ফুঁসছেন বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তনী এবং আশ্রমিকদের একাংশ। এই প্রাক্তনী–আশ্রমিকদের কয়েকদিন আগে বুড়ো খোকা, অশিক্ষিত বলে আক্রমণ করেছিলেন উপাচার্য। উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে এবার আচার্য তথা প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীকে চিঠি লিখল শান্তিনিকেতন ট্রাস্ট।

আর কী জানা যাচ্ছে?‌ বিশ্বভারতীর উপাচার্যের বিরুদ্ধে পড়ুয়া, অধ্যাপকদের সাসপেন্ড করার অভিযোগ রয়েছে। তিনি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কেও আক্রমণ করেছিলেন। তাঁর বিরুদ্ধে কলকাতা হাইকোর্টে মামলা চলছে। সম্প্রতি জমিজট বিতর্ক নিয়ে নোবেলজয়ী অর্থনীতিবিদ অমর্ত্য সেনকেও অপমান করেন তিনি। এমনকী উপাসনা গৃহে বসে আশ্রমিকদের নিয়ে নানা সময় আক্রমণ করতে দেখা গিয়েছে তাঁকে। সদ্য বসন্ত উৎসব বন্ধ করে দিয়ে বসন্ত বন্দনা করেছেন তিনি।

শান্তিনিকেতন ট্রাস্টের অভিযোগ কী?‌ বিশ্বভারতীতে যে উপাসনা গৃহ রয়েছে সেটা শান্তিনিকেতন ট্রাস্টের অধীনে। আর সেখানে বসে আশ্রমিক এবং উপাচার্যের সঙ্গে মত বিনিময় হয়। কিন্তু শান্তিনিকেতন ট্রাস্টের অভিযোগ, উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তী উপাসনা গৃহকে ব্যবহার করে রাজনৈতিক বৈঠক করছেন। উপাসনা গৃহে বসেই একাধিকবার রাজনৈতিক আলোচনা করছেন তিনি। যা নীতিবিরুদ্ধ হওয়ায় উপাচার্যের বিরুদ্ধে এবার আচার্য তথা প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি পাঠানো হল। আর উপাচার্য বিদ্যুৎ চক্রবর্তীর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ করার দাবি সেখানে করা হয়েছে।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

ইয়ংয়ের ধাক্কায় রান-আউট উইলিয়ামসন, কিউয়িদের ফলো-অনের লজ্জা থেকে মুক্তি দিল অজিরা পুরুলিয়া পাহাড়ে মিলেছে ডাইনোসরের জীবাশ্ম!‌ খবর চাউর হতেই আলোড়ন তুঙ্গে ওষুধের দাম নিয়ে দুশ্চিন্তা কমল, সুগার-প্রেশার-সহ ৬৯টি ওষুধের দাম বেঁধে দিল সরকার মীন রাশির এই মাস কেমন যাবে? জানুন এই মাসের রাশিফল কুম্ভ রাশির এই মাস কেমন যাবে? জানুন এই মাসের রাশিফল টিফিন ডেলিভারির আড়ালে মাদকের ব্যবসা শাবানার!প্রকাশ্যে 'ডাব্বা কার্টেল'-এর টিজার মকর রাশির এই মাস কেমন যাবে? জানুন এই মাসের রাশিফল ধনু রাশির এই মাস কেমন যাবে? জানুন এই মাসের রাশিফল মার্চের শুরুতেই দুর্যোগের মেঘে ঢাকবে বাংলার আকাশ, বৃষ্টি হবে কলকাতাতেও বৃশ্চিক রাশির এই মাস কেমন যাবে? জানুন এই মাসের রাশিফল

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.