বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শুটআউটের ঘটনায় কেঁপে উঠল এলাকা, ব্যবসায়ীর উপর গুলি চালাল দুষ্কৃতিরা
এলোপাথাড়ি গুলি। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)
এলোপাথাড়ি গুলি। (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য হিন্দুস্তান টাইমস)

শুটআউটের ঘটনায় কেঁপে উঠল এলাকা, ব্যবসায়ীর উপর গুলি চালাল দুষ্কৃতিরা

  • ওই ব্যবসায়ী যখন বাড়ি ফিরছিলেন, তখন তিনজন দুষ্কৃতি মোটরবাইকে করে এসে খুব কাছ থেকেই গুলি চালায়।

নির্বাচনের বাংলায় দোলের দিন শুটআউট। আর তাতেই এলাকায় তৈরি হল চাঞ্চল্য। কারণ ঘোলা থানার ঢিল ছোঁড়া দূরত্বে এই শুটআউটের ঘটনা ঘটেছে। আর পুলিশ কাউকে ধরতে পারেনি। পুলিশ সূত্রে খবর, সুখেন্দু কান্তি ভৌমিক (৫৫) নামের এক ব্যবসায়ীকে লক্ষ্য করে গুলি চালিয়ে পালিয়ে যায় একদল দুষ্কৃতি। যার জেরে গুরুতর আহত হন তিনি। রবিবার রাতে ওই ব্যবসায়ী যখন বাড়ি ফিরছিলেন, তখন তিনজন দুষ্কৃতি মোটরবাইকে করে এসে খুব কাছ থেকেই গুলি চালায়।

স্থানীয় সূত্রে খবর, রবিবার রাতে তিন রাউন্ড গুলির শব্দ শোনা গিয়েছিল। শব্দ শুনেই ছুটে আসেন এলাকার মানুষজন। ততক্ষণে গুলিবিদ্ধ হয়ে মাটিতে লুটিয়ে পড়েছিলেন এই ব্যবসায়ী। একটি গুলি ব্যবসায়ীর বুকের ঠিক নীচে লেগেছিল। প্রথমে তাঁকে পানিহাটি স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে, তাঁকে কলকাতার এক বেসরকারি হাসপাতালে স্থানান্তরিত করা হয়। ওই ব্যবসায়ীর অবস্থা আশঙ্কাজনক।

পুলিশ সূত্রে খবর, রাতের অন্ধকারে কে বা কারা ওই ব্যবসায়ীর উপর গুলি চালাল তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে। মুরাগাছা এলাকায় একটি পানশালার মালিকানা নিয়ে ঘোলার আরও এক ব্যবসায়ী মানিক দাসের সঙ্গে সুখেন্দু কান্তি ভৌমিকের মধ্যে বিবাদ ছিল। সেই বিবাদের জেরেই এই ঘটনাটি ঘটেছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে এই ঘটনায় এখনও পর্যন্ত কোনও গ্রেফতারি নেই।

উল্লেখ্য, থানার ১০০ মিটারের মধ্যে সোদপুর–বারাসাত রোডের উপর গুলি চলায় আতঙ্কিত এলাকার মানুষজন। এলাকার নিরাপত্তা নিয়েও প্রশ্ন তুলছেন অনেকে। প্রকাশ্য শুটআউটের জেরে পুলিশি টহল শুরু হয়েছে এলাকায়। ওখানের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

বন্ধ করুন