বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > তৃণমূলের মিছিল দেখেই স্কুল বাস থেকে উঠল ‘বিজেপি জিন্দাবাদ’ স্লোগান

তৃণমূলের মিছিল দেখেই স্কুল বাস থেকে উঠল ‘বিজেপি জিন্দাবাদ’ স্লোগান

তৃণমূলের মিছিল দেখে ‘বিজেপি জিন্দাবাদ’ স্লোগান।

মিছিল চলাকালীন যানজটে পড়ে কয়েকটি স্কুল বাস। তৃণমূলের মিছিল আসতে দেখে একটি বাস থেকে বাচ্চারা মুখ বের করে চিৎকার করে বলতে থাকে ‘বিজেপি জিন্দাবাদ’। মিছিলে অংশগ্রহণকারী কিছু তৃণমূল কর্মী আবার ক্ষুদেদের মুখে এই স্লোগান শুনে বিজেপি মুর্দাবাদ বলে পাল্টা স্লোগান দিতে থাকেন।

নিন্দুকে বলে পশ্চিমবঙ্গে রাজনীতির বাস শোয়ার ঘরেও। রাজনৈতিক বিবাদে সংসার ভাঙার নজিরও এরাজ্যে নতুন নয়। তবে কি সর্বত্র রাজনীতির অনুপ্রবেশের ভয়ানক প্রভাব পড়ছে শিশুমনেও? শিলিগুড়ির একটি ছবি তুলে দিল আশঙ্কার সেই প্রশ্ন। ভিডিয়োটিতে দেখা যাচ্ছে, তৃণমূলের মিছিল দেখে স্কুল বাস থেকে ‘বিজেপি জিন্দাবাদ’ স্লোগান দিচ্ছে পড়ুয়ারা। সেই ছবি আবার বুক ফুলিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় শেয়ার করছেন বিজেপি নেতারা।

সোমবার বিজেপির বিরুদ্ধে রাজ্য ভাগের চক্রান্তের অভিযোগ তুলে হিলকার্ট রোডে চার জেলার দলীয় কর্মীসমর্থকদের নিয়ে মিছিল করে তৃণমূল। মিছিল থেকে রাজ্যের কেন্দ্রীয় মন্ত্রীদের পদত্যাগের দাবি ওঠে। মিছিল শেষ হয় হাসমি চকে। মিছিলে ছিলেন যুব তৃণমূলের রাজ্য সভানেত্রী সায়নী ঘোষ। ব্যস্ত শহরে এমনিতেই যানজটে নাজেহাল শহরবাসী। তার ওপরে তৃণমূলের মিছিলে যানজট আরও ভয়াবহ আকার ধারণ করে। অন্য রাস্তায় গাড়ি ঘুরিয়ে দিয়ে পরিস্থিতি সামলানোর চেষ্টা করে পুলিশ।

মিছিল চলাকালীন যানজটে পড়ে কয়েকটি স্কুল বাস। তৃণমূলের মিছিল আসতে দেখে একটি বাস থেকে বাচ্চারা মুখ বের করে চিৎকার করে বলতে থাকে ‘বিজেপি জিন্দাবাদ’। মিছিলে অংশগ্রহণকারী কিছু তৃণমূল কর্মী আবার ক্ষুদেদের মুখে এই স্লোগান শুনে বিজেপি মুর্দাবাদ বলে পাল্টা স্লোগান দিতে থাকেন। অনেকে আবার মুখে আঙুল দিয়ে চুপ করার ইশারাও করে ক্ষুদেদের। কিন্তু সরল শিশুরা রাজনীতির মারপ্যাঁচ না বুঝেই খেলাচ্ছলে ক্রমাগত বিজেপি জিন্দাবাদ স্লোগান দিতে থাকে।

এই ভিডিয়ো হাতে পেতেই শেয়ার করা শুরু করেন বিজেপি নেতারা। সেই তালিকায় রয়েছেন স্থানীয় সাংসদ রাজু বিস্ত, বিধায়ক শংকর ঘোষ, দলের সহ সভপাতি দিলীপ ঘোষ।

বিজেপির সাধারণ সম্পাদক রাজু সাহা বলেন, ‘বাচ্চারাও বুঝে গেছে এখানে তৃণমূল বলে আর কিছু থাকবে না। তাই তারা বিজেপি জিন্দাবাদ স্লোগান দিয়েছে’। দার্জিলিং জেলা তৃণমূল মুখপাত্র বেদব্রত দত্ত অবশ্য এই ঘটনায় ষড়যন্ত্রের তত্ত্ব খাড়া করেছেন। তিনি বলেন, ‘বাসের মধ্যে এমন কেউ থাকতে পারে যে বা যারা বাচ্চাদের দিয়ে ওই স্লোগান বলিয়ে থাকতে পারে’।

 

বন্ধ করুন