বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ফ্যান ক্লাবের আদলে ‘অভিষেক বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের সৈনিক,’ উদ্যোগ পটাশপুরের বিধায়কের
পটাশপুরের তৃণমূল বিধায়ক উত্তম বারিক (ফেসবুক)
পটাশপুরের তৃণমূল বিধায়ক উত্তম বারিক (ফেসবুক)

ফ্যান ক্লাবের আদলে ‘অভিষেক বন্দ্যোপাধ্য়ায়ের সৈনিক,’ উদ্যোগ পটাশপুরের বিধায়কের

  • তিনি সতর্ক করে দিয়েছেন, এই সৈনিকরা কোনওভাবেই প্রশাসনিক কর্মকাণ্ডে নাক গলাবেন না। সাধারণ মানুষের আপদে বিপদে তাঁরা পাশে থাকবেন।

অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সেনা। প্রথমবার ভোটে জিতে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৈনিক দল গড়ার কথা জানালেন  পূর্ব মেদিনীপুরের তৃণমূল বিধায়ক উত্তম বারিক। অনেকটা ফ্যান ক্লাবের আদলে তৈরি করেছেন এই সেনাদল। তবে এর সঙ্গেই তিনি সতর্ক করে দিয়েছেন এই সৈনিকরা কোনওভাবেই প্রশাসনিক কর্মকাণ্ডে নাক গলাবেন না। সাধারণ মানুষের আপদে বিপদে তাঁরা পাশে থাকবেন। মানুষের বন্ধু হিসাবে কাজ করবেন তাঁরা।  এই নতুন উদ্য়োগের জন্য নাম লেখানোর কাজও শুরু হয়েছে। রাজনৈতিক পর্যবেক্ষকদের মতে বছর দুয়েক বাদেই পঞ্চায়েত ভোট। তার আগেই একেবারে নীচুতলায় সংগঠনকে আরও মজবুত করতে চাইছে তৃণমূল। সেকারণেই অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৈনিক নামকরণের মাধ্যেমে যুব সমাজকে ঐক্য়বদ্ধ করার উদ্যোগ নেওয়া হচ্ছে। পাশাপাশি নীচুতলায় জনসংযোগের ক্ষেত্রে যাতে কোনও ঘাটতি না থেকে যায় সেটাও নিশ্চিত করার চেষ্টা করছেন তৃণমূল নেতৃত্ব।এদিকে মাসখানেকের মধ্যেই এই উদ্যোগে নাম লিখিয়েছেন প্রায় হাজার দুয়েক যুবক। মাস খানেকের মধ্যে ১০হাজারের টার্গেট নিয়েছেন বিধায়ক।

বিধায়ক বলেন, ‘অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের সৈনিকদের কাজ হবে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে, মানুষের পরিষেবাটা দেওয়া। এখানে নাম নথিভুক্ত করলে তারা পঞ্চায়েতের কোনও কাজে নাক গলাবেন না।  সাংগঠনিক কাজটাই করবেন।’ প্রসঙ্গত এবার পূর্ব মেদিনীপুরের ১৬টি আসনের মধ্যে ৯টিতে জিতেছে তৃণমূল। এখনও সাতটি আসন রয়েছে বিজেপির দখলে। এদিকে তৃণমূল বিধায়কের এই উদ্যোগকে ঘিরে ইতিমধ্যেই সমালোচনাও শুরু হয়েছে। কটাক্ষ করতে ছাড়েননি বিজেপি নেতৃত্ব। বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, বেকার যুবক যুবতীদের কর্মসংস্থানের কোনও ব্যাপার নেই। কেবলমাত্র রাজনৈতিক স্বার্থে ব্যবহার করতে চাইছেন। যুব সমাজের মেরুদণ্ড ভেঙে দিতে চাইছে তৃণমূল।  

 

বন্ধ করুন