বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > স্ত্রী সুজাতার সঙ্গে ডিভোর্স করার জন্য মামলা করলেন সাংসদ সৌমিত্র
 সৌমিত্র খাঁ এবং সুজাতা খাঁ মণ্ডল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)
 সৌমিত্র খাঁ এবং সুজাতা খাঁ মণ্ডল। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)

স্ত্রী সুজাতার সঙ্গে ডিভোর্স করার জন্য মামলা করলেন সাংসদ সৌমিত্র

  • এর আগেও সুজাতা মন্ডলকে দু-দুবার বিবাহ বিচ্ছেদের আইনি নোটিস তিনি পাঠিয়েছিলেন।

২০১৯ এর লোকসভা নির্বাচনের পরে স্ত্রী সুজাতা মন্ডলের সঙ্গে বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁ'র সম্পর্কে চিড় ধরেছিল। অবশেষে সেই সম্পর্ক পুরোপুরি ভাবে সমাপ্ত করে দিতে বিবাহবিচ্ছেদের পথেই হাঁটলেন সৌমিত্র খাঁ। এর আগেও সুজাতা মন্ডলকে দু-দুবার বিবাহ বিচ্ছেদের আইনি নোটিস তিনি পাঠিয়েছিলেন। তবে শেষ পর্যন্ত বাঁকুড়া জেলা আদালতে বিবাহবিচ্ছেদের মামলা দায়ের করেছেন বিষ্ণুপুরের বিজেপি সাংসদ। সোমবার বাঁকুড়া জেলা আদালতে বিবাহবিচ্ছেদের মামলা করার কথা তিনি নিজেই জানিয়েছেন।

২০১৯ সালের লোকসভা ভোটে এলাকায় স্বামীর হয়ে কোমর বেঁধে প্রচার চালিয়েছিলেন সুজাতা মন্ডল। ২০২০ সালের ২১ ডিসেম্বর সুজাতা মন্ডল তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পরেই তাদের দাম্পত্য সম্পর্কে চিড় ধরে। সেই সময় কান্নায় ভেঙে পড়তে দেখা গিয়েছিল বিজেপি সাংসদকে। বিবাহ বিচ্ছেদ না হলেও তারপর থেকেই দুজনে আলাদা থাকতে শুরু করেন।

সোমবার আদালতে সাংবাদিকদের মুখোমুখি হয়ে সৌমিত্র জানিয়েছেন, ' ২০২১ সালের জানুয়ারি মাসে সুজাতাকে প্রথম নোটিশ পাঠিয়েছিলাম। এরপর দ্বিতীয় নোটিশ পাঠিয়েছিলাম ২০২১ সালের মার্চ মাসে।' রাজনীতিক টানাপড়েনের কারণে যে তাদের সম্পর্কে চিড় ধরেছিল সেই কথা স্বীকার করে নিয়ে এখন 'রাজনীতিকেই জীবন' বলে মনে করছেন সৌমিত্র খাঁ । বিবাহ-বিচ্ছেদের মামলায় সৌমিত্র বাঁকুড়া আদালতে লড়বেন আইনজীবী সোমনাথ রায়চৌধুরী ।

সুজাতা মন্ডল তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পরেই বিজেপির সঙ্গে সমস্ত সম্পর্ক ছিন্ন করে দিয়েছিলেন। তবে স্ত্রীর এরকম ভোলবদল কিছুতেই মেনে নিতে পারেননি সৌমিত্র খাঁ। এরপরে সাংবাদিক বৈঠকে আবেগপ্রবণ হয়ে কান্নায় ভেঙ্গে পড়ে সুজাতাকে হুঁশিয়ারি দিয়ে 'খাঁ পদবীর পরিবর্তে শুধুমাত্র মন্ডল পদবী' ব্যবহার করতে বলেছিলেন। সেই সময় সুজাতাও বলেছিলেন আমি আবার নতুন করে জীবন শুরু করতে চাই।

যদিও বিবাহবিচ্ছেদের মামলা দায়ের প্রসঙ্গে কোনও মন্তব্য করতে চাননি সুজাতা মন্ডল। এনিয়ে তাঁর যা বলার পরে বলবেন বলে তিনি জানিয়েছেন।

বন্ধ করুন