ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

এলাকায় নেই কোনও করোনারোগী, তবু সিল হল আস্ত গ্রাম, জেনে নিন কেন

  • করোনা রোগী না থাকলেও এলাকা সিল হয়ে যাওয়ায় কিছুটা অবাক স্থানীয়রা। প্রশাসনের তরফে আশ্বস্ত করা হয়েছে, ভয়ের কিছু নেই।

গ্রামের অধিকাংশ পুরুষই ভিনরাজ্যের শ্রমিক। করোনা লকডাউনের মধ্যেই তাদের অনেকে গ্রামে ফিরেছেন। তবে তাদের মধ্যে এখনো কাউকে করোনায় আক্রান্ত বলে চিহ্নিত করেনি প্রশাসন। তবু, আগাম সতর্কতামূলক ব্যবস্থা হিসাবে দক্ষিণ ২৪ পরগনার বারুইপুরের মল্লিকপুর গ্রাম সিল করল স্বাস্থ্য দফতর।

এলাকার সমস্ত রাস্তা বাঁশের ব্যারিকেড করে সিল করে দিয়েছে প্রশাসন। এলাকায় ঢোকা ও বেরনো নিষিদ্ধ হয়েছে। এলাকায় মোতায়েন হয়েছে পুলিশ। কয়েকশ’ স্বাস্থ্যকর্মী গোটা এলাকায় বাড়ি বাড়ি গিয়ে কারও শর্দি – কাশির মতো উপসর্গ রয়েছে কি না খোঁজ নিচ্ছেন। থার্মাল গান দিয়ে পরীক্ষা করা হচ্ছে বাসিন্দাদের দেহের তাপমান।

জেলা প্রশাসন সূত্রের খবর, দক্ষিণ ২৪ পরগনার বহু মানুষ রাজ্য ও দেশের বিভিন্ন জায়গায় কাজ করেন। ফলে প্রত্যন্ত এলাকাগুলিতেও বাইরের লোকজনের যাতায়াত রয়েছে। মল্লিকপুর-সহ তেমনই কয়েকটি জায়গাকে চিহ্নিত করেছে জেলা প্রশাসন। সেখানে কড়া নজরদারি চালানো হচ্ছে প্রতিটি বাড়িতে। জনে জনে চলছে স্বাস্থ্য পরীক্ষা।

তবে করোনা রোগী না থাকলেও এলাকা সিল হয়ে যাওয়ায় কিছুটা অবাক স্থানীয়রা। প্রশাসনের তরফে আশ্বস্ত করা হয়েছে, ভয়ের কিছু নেই। যে কোনও সমস্যায় পাশে রয়েছেন প্রশাসনের আধিকারিকরা।



বন্ধ করুন