বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > SP of Barasat Sadar: রাতের শহরে সাইকেলে করে ঘুরছেন SP, যানজট নিয়ন্ত্রণে SP-র ভূমিকায় মুগ্ধ এলাকাবাসী

SP of Barasat Sadar: রাতের শহরে সাইকেলে করে ঘুরছেন SP, যানজট নিয়ন্ত্রণে SP-র ভূমিকায় মুগ্ধ এলাকাবাসী

বারাসতের পুলিশ সুপার রাজানারায়ণ মুখোপাধ্যায়। ছবি সৌজন্যে, বারাসত জেলা পুলিশ।

 এর আগে কোনও পুলিশ সুপার বা পুলিশের আধিকারিকরা সমস্যার সমাধান করতে পারেননি। এ নিয়ে শহরবাসীর অভিযোগ রয়েছে প্রচুর। তাই সমস্যার সমাধানে গাড়িতে করে না ঘুরে সন্ধ্যায় বা রাত হলে মাঝেমধ্যে সাদা পোশাকে সাইকেল নিয়ে বেরিয়ে পড়ছেন পুলিশ সুপার।

কোনও নিরাপত্তা রক্ষী নেই। উর্দিও নেই। একেবারে সাধারণ পোশাকে রাতের শহরে ঘুরে বেড়াচ্ছেন পুলিশ সুপার। সঙ্গী বলতে তার দুই চাকার সাইকেল। রাত হলে সাইকেলের প্যাডেলে চাপ দিয়ে ঘুরে বেড়াচ্ছেন শহরের বিভিন্ন প্রান্ত। এলাকায় যানজটের সমস্যা সমাধানে এভাবেই প্রতিদিন রাস্তায় নামছেন উত্তর ২৪ পরগনার বারাসত জেলা সদরের পুলিশ সুপার রাজনারায়ণ মুখোপাধ্যায়। একজন পুলিশ সুপারের এরকম ভূমিকায় মুগ্ধ এলাকাবাসী থেকে শুরু করে পুলিশ মহল।

জানা গিয়েছে, বারাসতে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়ক আর যশোর রোডে যানজটের সমস্যা দীর্ঘদিন ধরে। এর আগে কোনও পুলিশ সুপার বা পুলিশের আধিকারিকরা সমস্যার সমাধান করতে পারেননি। এ নিয়ে শহরবাসীর অভিযোগ রয়েছে প্রচুর। তাই সমস্যার সমাধানে গাড়িতে করে না ঘুরে সন্ধ্যায় বা রাত হলে মাঝেমধ্যে সাদা পোশাকে সাইকেল নিয়ে বেরিয়ে পড়ছেন পুলিশ সুপার। যানজটের কারণ খতিয়ে দেখতে তিনি বিভিন্ন এলাকা ঘুরছেন।

রাস্তার ধারে পার্কিংয়ের ফলে বারাসতে যানজটের সমস্যা তৈরি হয়। এছাড়াও রাতের দিকে গাড়ির সংখ্যা বাড়ার ফলে যানজট বাড়তে থাকে। রাতের শহর ঘুরে পুলিশ সুপার এই সমস্যাগুলি ধরতে পেরে যানজট নিয়ন্ত্রণে উদ্যোগ নিয়েছেন। শুধু তাই নয়, ট্রাফিক পুলিশকেও তিনি এ বিষয়ে নির্দেশ দিয়েছেন। ইতিমধ্যেই এসপির নির্দেশে যশোর রোডের ধারে অবস্থিত একটি বেসরকারি স্কুলের সামনে থেকে গাড়ি পার্কিং বন্ধ করা হয়েছে। পুলিশ সুপারের এই ভূমিকায় মুগ্ধ কমবেশি সকলেই মুগ্ধ। তবে বিষয়টিকে বেশি গুরুত্ব দিতে রাজি নন পুলিশের সুপার। তিনি বলেন, ‘অনেকদিন ধরেই মানুষের এই সমস্যা হচ্ছে। ইতিমধ্যেই বেশ কিছু উদ্যোগ নেওয়া হয়েছে। আগামী দিনেও একাধিক উদ্যোগ নেওয়া হবে।’

বন্ধ করুন