বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > মাওবাদী পোস্টার সাঁটতে গিয়ে ধরা পড়লেন সরকারি প্যাকেজে চাকরি পাওয়া হোমগার্ড-সহ ২
ধৃতদের আদালতে পেশ করছে পুলিশ।

মাওবাদী পোস্টার সাঁটতে গিয়ে ধরা পড়লেন সরকারি প্যাকেজে চাকরি পাওয়া হোমগার্ড-সহ ২

  • ধৃত শিবরাজের বাড়ি লালগড়ের কৃষ্ণনগর গ্রামে। এছাড়া সনাতন মাহাতো ও তারু পাতুর নামে ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শিবরাজের স্ত্রীর দাবি, ও পুলিশকে মাওবাদীদের খবর দিত। পুলিশই ওকে ফাঁসানোর জন্য ফাঁদ পেতেছিল।

মাওবাদীদের নামে পোস্টার সাঁটতে গিয়ে হাতে নাতে ধরা পড়লেন সরকারি প্যাকেজে চাকরি পাওয়া হোমগার্ডসহ ৩ জন। সোমবার ঝাড়গ্রামে এই ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। তবে ধৃত হোমগার্ডের স্ত্রীর দাবি, তাঁকে ফাঁসানো হয়েছে।

জঙ্গলমহলে গত কয়েক সপ্তাহ ধরে উদ্ধার হচ্ছে মাওবাদী পোস্টার। কারা পোস্টার সাঁটছে তা ধরতে তক্কে তক্কে ছিল পুলিশ। রবিবার গভীর রাতে আমডাঙা গ্রামে পোস্টার সাঁটার সময় তেমনই ৩ জনকে হাতেনাতে ধরেন পুলিশকর্মীরা। উদ্ধার হয় মাওবাদী পোস্টার। দেখা যায় তাদের মধ্যে শিবরাজ মানা নামে একজন স্পেশ্যাল হোমগার্ডের পদে চাকরিরত। বছরখানেক আগে সরকারের স্পেশ্যাল প্যাকেজে চাকরি পেয়েছিলেন তিনি। ধৃত অপর ২ জন ঝাড়গ্রাম পুলিশ লাইনের অস্থায়ী কর্মী।

ধৃত শিবরাজের বাড়ি লালগড়ের কৃষ্ণনগর গ্রামে। এছাড়া সনাতন মাহাতো ও তারু পাতুর নামে ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। শিবরাজের স্ত্রীর দাবি, ও পুলিশকে মাওবাদীদের খবর দিত। পুলিশই ওকে ফাঁসানোর জন্য ফাঁদ পেতেছিল। ওদিকে পুলিশের দাবি, ধৃতদের সঙ্গে মাওবাদীদের কোনও যোগ পাওয়া যায়নি। এলাকায় আতঙ্ক ছড়াতে এই কাজ করছিল তারা।

সোমবার ধৃতদের ঝাড়গ্রাম আদালতে পেশ করে পুলিশ। তাদের ৩ দিনের পুলিশ হেফাজতে পাঠিয়েছেন বিচারক। এই ঘটনায় জেলার পুলিশমহলে চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। কেন একজন হোমগার্ড ও পুলিশ লাইনের ২ কর্মী মাওবাদী পোস্টার সাঁটাতে গেলেন তার জবাব খুঁজছে পুলিশ।

 

বন্ধ করুন