বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শুধু ত্রাণ বিলি নয়, আমফান বিধ্বস্ত এলাকায় স্বাভাবিক জীবন ফেরানোর লড়াই SPADE-এর
ত্রাণ নিয়ে যাচ্ছেন স্পেডের প্রতিনিধিরা (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত)
ত্রাণ নিয়ে যাচ্ছেন স্পেডের প্রতিনিধিরা (ছবি সৌজন্য সংগৃহীত)

শুধু ত্রাণ বিলি নয়, আমফান বিধ্বস্ত এলাকায় স্বাভাবিক জীবন ফেরানোর লড়াই SPADE-এর

  • দুর্গত এলাকার মানুষদের পুনর্বাসন, জীবিকা প্রদানের মতো দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।

আমফানের সতর্কবার্তার পর থেকেই শুরু হয়েছিল কাজ। ভয়াল ঘূর্ণিঝড়ের পর তা আরও গতি পায়। বাংলার উপকূলবর্তী এলাকার দিশেহারা মানুষদের সাহায্যের জন্য ফেসবুকে আবেদন করা হয়। মাত্র দু'দিনেই জোগাড় হয় ছ'লাখ টাকা। তা দিয়েই আমফান বিধ্বস্ত ৬০০ পরিবারের হাতে তুলে দেয় স্বেচ্ছাসেবী সংগঠন স্পেড।

আবহাওয়া দফতরের পূর্বাভাস পাওয়ার পরই রাজ্য সরকারের সঙ্গে হাত মিলিয়ে প্রস্তুতি যুদ্ধে সামিল হয়েছিলেন সংগঠনের প্রতিনিধিরা। দক্ষিণ চব্বিশ পরগনার নামখানা ও সাগরদ্বীপ ব্লক এবং পূর্ব মেদিনীপুরের সুতাহাটা ব্লকের বিপদসঙ্কুল এলাকার মানুষদের নিরাপদ আশ্রয়ে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। সেখানে খাবার বন্দোবস্ত করা হয়েছিল। কিন্তু করোনাভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ের আমফানের যুদ্ধ আরও কঠিন হয়ে উঠেছিল। তবু দাঁতে দাঁত চেপে প্রস্তুতি চালিয়ে যাচ্ছিল স্পেড।

কিন্তু গত ২০ মে আমফানের তাণ্ডবে তছনছ হয়ে যায় রাজ্যের উপকূলবর্তী এলাকাগুলি। হাজার হাজার মানুষ রাতারাতি গৃহহীন হয়ে পড়েছিলেন। ছিল না পানীয় জল। জমিতে ঢুকে গিয়েছিলে নোনা জল। বিদ্যুৎ সংযোগ থাকা তো দূর অস্ত। তা দেখেই ফেসবুকের মাধ্যমে অর্থ সংগ্রহ করা হয়েছিল। যুদ্ধকালীন তৎপরতায় ৬০০ দুর্গত পরিবারের জন্য ৬০০ টি ব্যাগ তৈরি করেছিল স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার স্বনির্ভর গোষ্ঠী। প্রতিটি ব্যাগে ১,০০০ টাকা মূল্যের বিভিন্ন নিত্যপ্রয়োজনীয় ছিল। তারপর তা আমফান বিধ্বস্ত পরিবারগুলির হাতে তুলে দেওয়া হয়েছিল। কিছুটা হাসি ফুটেছিল দুর্দশাগ্রস্ত মানুষদের মুখে।

সেই মুখগুলিতে হাসি আরও কিছুটা চওড়া করার জন্য নামখানা, সাগরদ্বীপ এবং সুতাহাটি ব্লকে বিভিন্ন দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা করছে স্পেড। ওই মানুষদের চাহিদা পূরণের আপ্রাণ চেষ্টা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে স্পেড। তাতে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিয়েছে মা সারদা মহিলা সংঘ এবং পিউপা। এছাড়াও অক্সফ্যাম ইন্ডিয়া, ইন্দো-গ্লোবাল সোশ্যাল সার্ভিসেসের (আইজিএসএস) মতো আন্তর্জাতিক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে দীর্ঘদিন ধরে জড়িত থাকার সুবাদে স্পেডের লড়াইয়ে সামিল হয়েছে তারাও।

বিষয়টি নিয়ে স্পেডের ডিরেক্টর-রিসোর্সেস ইন্দ্রজিৎ দত্ত বলেন, ‘গত ২৫ বছরেরও বেশি বিভিন্ন সুযোগ-সুবিধা থেকে বঞ্চিত বাংলার মানুষদের পাশে রয়েছে স্পেড। ত্রাণ বিলি করা এবং সংকটের সময় তাঁদের পাশে থাকা আমাদের মিশনের অংশ। দুর্গত এলাকার মানুষদের পুনর্বাসন, জীবিকা প্রদান, লেখা স্কুল ঠিক করে যত দ্রুত সম্ভব জীবনের স্বাভাবিক ছন্দ ফিরে আসে, সেই চেষ্টা করছি।’

বিশেষ বার্তা

পশ্চিমবঙ্গের ত্রাণ তহবিলে দান করুন

WEST BENGAL STATE EMERGENCY RELIEF FUND

(Part of Chief Minister Relief Fund)

https://wbserf.wb.gov.in/wbserf

A/C No: 628005501339

Bank: ICICI Bank

Branch: Howrah

IFSC Code: ICIC0006280

MICR Code: 700229010

SWIFT Code: ICICINBBCTS

বন্ধ করুন