বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > খেলা শুরু! নৈহাটির আস্ত স্টেডিয়াম বদলে গেল সেফ হোমে, চূড়ান্ত নজরদারি প্রশাসনের
করোনাবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়ে প্রচার শুরু করে দিয়েছে কলকাতা পুলিশ। (PTI)
করোনাবিধি মেনে চলার পরামর্শ দিয়ে প্রচার শুরু করে দিয়েছে কলকাতা পুলিশ। (PTI)

খেলা শুরু! নৈহাটির আস্ত স্টেডিয়াম বদলে গেল সেফ হোমে, চূড়ান্ত নজরদারি প্রশাসনের

  • বিধাননগর ও দমদম এলাকাতেও করোনা রোগীদের সংখ্যা বাড়ছে। রাজ্য জুড়েই একই ছবি।

স্টেডিয়ামের সামনে বড় করে লেখা, খেলা হবে দিবস। নৈহাটি স্টেডিয়ামে গেলেই দেখা যাবে এই ছবি। কিন্তু সেই স্টেডিয়াম যে এবার করোনার খেলা সামাল দিতে ব্যবহার করা হবে তা কে জানত? আপাতত আস্ত একটি স্টেডিয়ামই বদলে যাচ্ছে সেফ হোমে। নৈহাটি স্টেডিয়ামে খেলার যাবতীয় বিষয়কে আপাতত স্থগিত রেখে সেখানে সেফ হোম খোলা হয়েছে। মূলত করোনা আক্রান্তের সংখ্য়া যেভাবে বাড়ছে তাতে আর কোনও ঝুঁকি নিতে চাইছে না প্রশাসন। এদিন জেলাশাসক সহ প্রশাসনের আধিকারিকরা সেফ হোম সহ সামগ্রিক পরিস্থিতি খতিয়ে দেখেন। বর্তমানে উত্তর ২৪ পরগনার দুটি হাসপাতালে করোনা রোগীদের ভর্তি করানো হচ্ছে। একটি সিএমসিআই ও অপরটি সাগর দত্ত হাসপাতাল। এদিকে বিধাননগর ও দমদম এলাকাতেও করোনা রোগীদের সংখ্যা বাড়ছে। রাজ্য জুড়েই একই ছবি। সেকারণেই এবার ফের মাইক্রো কনটেন্টমেন্ট পয়েন্ট ও সেফ হোমের পথে হাঁটছে রাজ্য।

একদিকে বর্ষশেষের আনন্দে গা ভাসিয়েছেন আমজনতা। অন্যদিকে বাংলা জুড়ে চোখ রাঙাচ্ছে ওমিক্রন, ডেল্টা। সেকারণে পরিস্থিতি মোকাবিলা করতে আগে যে হাসপাতালগুলিকে কোভিড চিকিৎসার সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছিল সেগুলিকে ফের সক্রিয় করা হচ্ছে।  আগের সেফ হোমগুলিকেও ধাপে ধাপে শুরু করা হচ্ছে। বেসরকারি হাসপাতালগুলিকে প্রয়োজনীয় বেড তৈরি রাখার ব্যাপারে বলা হয়েছে। প্রতিদিন কত নমুনা পরীক্ষা হচ্ছে তার রিপোর্টও নিয়ম করে স্বাস্থ্যভবনে পাঠানোর ব্যাপারে বলা হয়েছে। মোটের উপর পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে কি না সেটাও নিশ্চিত করতে বলা হয়েছে। 

 

বন্ধ করুন