পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি (REUTERS)
পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ফাইল ছবি (REUTERS)

কাটমানির জন্যই সারেঙ্গায় ভেঙে পড়েছে জলের ট্যাঙ্ক, কার্যত মানলেন মুখ্যমন্ত্রী

  • বুধবারের প্রশাসনিক বৈঠকে সেই প্রসঙ্গ তোলেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, ‘জলের ট্যাঙ্ক ভেঙে পড়ছে এখানে। কোন কনট্রাক্টর করে শুনি?’

তাঁর দলের নেতারা কাটমানি নেওয়াতেই সারেঙ্গায় ভেঙে পড়েছে জলের ট্যাঙ্ক। বুধবার বাঁকুড়ার প্রশাসনিক বৈঠকে কার্যত মেনে নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এদিন দলের নেতা ও ইঞ্জিনিয়ারদের সতর্ক করে তিনি বলেন, ‘কনট্রাক্টরদের কাজ দিয়ে ভাগ চাওয়া বন্ধ করো।’

গত ২২ জানুয়ারি ভর দুপুরে বাঁকুড়ার সারেঙ্গার ফতেডাঙা গ্রামের ক্ষেতে হুড়মুড়িয়ে ভেঙে পড়ে নীল – সাদা রং করা বিশাল জলের ট্যাঙ্ক। ট্যাঙ্কটির বসয় হয়েছিল মাত্র ২ বছর। চোখের সামনে আস্ত জলের ট্যাঙ্ক ভেঙে পড়তে দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন গ্রামবাসীরা। বরাতজোরে সেদিন কেউ হতাহত হননি।

বুধবারের প্রশাসনিক বৈঠকে সেই প্রসঙ্গ তোলেন মুখ্যমন্ত্রী। বলেন, ‘জলের ট্যাঙ্ক ভেঙে পড়ছে এখানে। কোন কনট্রাক্টর করে শুনি?’ এরপর দলের নেতা ও ইঞ্জিনিয়ারদের মুখ্যমন্ত্রীর নির্দেশ, ‘কনট্রাক্টরদের কাজ দিয়ে টাকা নেওয়া বন্ধ করো।’

বলে রাখি, সারেঙ্গায় জলের ট্যাঙ্ক ভেঙে পড়ার ঘটনায় শাসকদলের নেতাদের দিকেই আঙুল তুলেছিল বিরোধীরা। তাদের অভিযোগ ছিল, কাজের বরাত পাওয়ার জন্য তৃণমূল নেতাদের কাটমানি দিতে দিতে কাজ করার মতো আর টাকা কনট্রাক্টরের কাছে অবশিষ্ট থাকে না। ফলে বাধ্য হয়েই নিম্নমানের সামগ্রী দিয়ে প্রকল্পের কাজ করতে হয় কনট্রাক্টরদের। বুধবার বাঁকুড়ার মাটিতে দাঁড়িয়ে বিরোধীদের সেই অভিযোগ কার্যত মেনে নিলেন মুখ্যমন্ত্রী।


বন্ধ করুন