বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > চারমাসের শিশুকে মুখে তুলে পালাচ্ছিল শেয়াল, তাড়া করতেই ভয়ঙ্কর কাণ্ড! আহত ১০

চারমাসের শিশুকে মুখে তুলে পালাচ্ছিল শেয়াল, তাড়া করতেই ভয়ঙ্কর কাণ্ড! আহত ১০

শেয়ালের হানায় আহত গ্রামবাসী। হিন্দুস্তান টাইমস।

রঘুনাথগঞ্জের ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসার প্রদীপ ঘোষ জানিয়েছেন, সাধারণত বসতি এলাকায় শেয়াল আসে না। তবে দীর্ঘদিন খাবার না পেলে ওরা মানুষকে আক্রমণ করে। বিডিও সমীরণ কৃষ্ণ মণ্ডল বলেন, গ্রামবাসীরা একটা চিঠি দিয়েছেন। এই ধরণের হামলা যাতে না হয় সেকারণে বনদফতরের সহায়তা চাওয়া হচ্ছে।

শ্রেয়সী পাল

চার মাসের শিশুকে মুখে নিয়ে পালানোর চেষ্টা করছিল শেয়াল। শেয়ালটিকে আটকানোর চেষ্টা করেন স্থানীয়রা। তখনই পালটা তাদের উপর ঝাঁপিয়ে পড়ে শেয়ালটি। সেই হামলায় অন্তত ১০জন জখম হয়েছেন। তার মধ্যে মহিলা ও কমবয়সীরাও রয়েছে।

মুর্শিদাবাদের সুতি ২ ব্লক এলাকায় বাউরিপুনি-উল্লাপাড়া এলাকায় বুধবার সকালে ঘটনা। আশরাফুল শেখ নামে এক ব্য়ক্তি প্রথম দেখতে পান শেয়ালটি শিশুটিকে মুখে তুলে নিয়ে পালাচ্ছে। এরপরই তিনি তাড়া করেন শেয়ালটিকে।

এরপর শেয়ালটি বাচ্চাটিকে ফেলে দেয়। তারপর আশরাফুলের উপর হামলা চালায়। একেবারে রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন আশরাফুল। সব মিলিয়ে শেয়ালের হানায় জখম হয়েছেন চারজন পুরুষ, চারজন মহিলা,দুজন কমবয়সী।

শিশু সহ আহতদের দ্রুত হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। একজনের আঘাত গুরুতর। তাকে জঙ্গিপুর সুপার স্পেশালিটি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

আশরাফুল জানিয়েছেন, ভোর সাড়ে ৫টা নাগাদ কাজে বের হচ্ছিলাম। সেই সময় দেখি শেয়ালটা বাচ্চাটাকে মুখে নিয়ে বেরিয়ে যাচ্ছে। এরপর তাড়া করে বাচ্চাটিকে বাঁচাই। এরপরই শেয়ালটা ঘুরে আমায় কামড়ে দিল। যারা বাঁচাতে এসেছিল তাদেরও কামড়ে দিয়েছে।

রঘুনাথগঞ্জের ফরেস্ট রেঞ্জ অফিসার প্রদীপ ঘোষ জানিয়েছেন, সাধারণত বসতি এলাকায় শেয়াল আসে না। তবে দীর্ঘদিন খাবার না পেলে ওরা মানুষকে আক্রমণ করে। বিডিও সমীরণ কৃষ্ণ মণ্ডল বলেন, গ্রামবাসীরা একটা চিঠি দিয়েছেন। এই ধরণের হামলা যাতে না হয় সেকারণে বনদফতরের সহায়তা চাওয়া হচ্ছে।

 

বন্ধ করুন