বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Ragging: সরকারি স্কুলে র‌্যাগিং! আতঙ্কে স্কুল যাচ্ছে না অনেক ছাত্রী, বিক্ষোভ অভিভাবকদের
র‌্যাগিংয়ের অভিযোগ। প্রতীকী ছবি (HT_PRINT)

Ragging: সরকারি স্কুলে র‌্যাগিং! আতঙ্কে স্কুল যাচ্ছে না অনেক ছাত্রী, বিক্ষোভ অভিভাবকদের

  • জানা গিয়েছে, র‌্যাগিংয়ের মূল যে অভিযোগকে কেন্দ্র করে অভিভাবকরা বিক্ষোভ করেন সেই ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার। ওইদিন এক ছাত্রীকে ছুরি জাতীয় ধারালো বস্তু দিয়ে ভয় দেখান স্থানীয়রা। এরপরেই ওই ছাত্রীর অভিভাবকরা স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেন। 

র‌্যাগিংয়ের অভিযোগ সরকারি স্কুলে। সিনিয়র পড়ুয়ারা নিচু শ্রেণির পড়ুয়াদের ওপর র‌্যাগিং করছে বলে অভিযোগ। এই অভিযোগ উঠেছে মেদিনীপুর শহরের ঋষি রাজনারায়ণ মহিলা উচ্চ মাধ্যমিক বিদ্যালয়ে। শুধু র‌্যাগিং নয়, নিচু শ্রেণির পড়ুয়াদের ছুরি দিয়ে ভয় দেখানো হয়েছে বলেও অভিযোগ। এরপর থেকেই অনেক পড়ুয়া ভয়ে স্কুলে যাচ্ছে না। এই ঘটনায় অভিভাবকরা স্কুল কর্তৃপক্ষের কাছে ব্যবস্থা নেওয়ার দাবি জানিয়েছে। গতকাল স্কুলে এনিয়ে বিক্ষোভ করেন অভিভাবকরা।

জানা গিয়েছে, র‌্যাগিংয়ের মূল যে অভিযোগকে কেন্দ্র করে অভিভাবকরা বিক্ষোভ করেন সেই ঘটনাটি ঘটেছে শুক্রবার। ওইদিন এক ছাত্রীকে ছুরি জাতীয় ধারালো বস্তু দিয়ে ভয় দেখান স্থানীয়রা। এরপরেই ওই ছাত্রীর অভিভাবকরা স্কুল কর্তৃপক্ষের সঙ্গে কথা বলেন। অভিভাবকদের অভিযোগ, সিনিয়র বেশ কয়েকজন ছাত্রী র‌্যাগিংয়ের পাশাপাশি পঞ্চম ও ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রীদের দিয়ে জল অনানো, পা টেপানো, বাসন মাজার মতোও কাজ করিয়ে থাকে। এই অভিযোগ ওঠার পরেই স্কুলের প্রধান শিক্ষিকা সুজাতা গোস্বামী বলেন। আক্রান্ত ছাত্রীকে নিয়ে অভিযুক্তদের শনাক্ত করার চেষ্টা চলছে।

এর পাশাপাশি ছাত্রীদের নিরাপত্তার জন্য স্কুলে সিসিটিভি বসানোর পাশাপাশি নিরাপত্তা রক্ষী নিয়োগ করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে স্কুল কর্তৃপক্ষ। পরিস্থিতি খতিয়ে দেখতে স্কুলে যান শিশুকল্যাণ দফতরের আধিকারিকরাও। এছাড়াও মেদিনীপুর পুরসভার পুরপ্রধান সৌমেন খানও স্কুলে যান। স্কুল পরিচালন কমিটির সভাপতি সুব্রত সরকার বলেন, অভিযুক্ত ছাত্রীদের খুঁজে বের করার জন্য ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে। এর পাশাপাশি ছাত্রীদের কাউন্সিলিংয়ের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।

বন্ধ করুন