বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > একই দিনে একই ছাত্রকে পরপর দুবার টিকা! এ কী করে সম্ভব! চাঞ্চল্য এলাকায়
একই দিনে একই ছাত্রকে পরপর দুবার টিকা! স্কুলের গাফিলতিকেই দায়ী করছেন পরিবার। প্রতীকী ছবি। (PTI)

একই দিনে একই ছাত্রকে পরপর দুবার টিকা! এ কী করে সম্ভব! চাঞ্চল্য এলাকায়

  • নিয়ে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে। ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে স্বাস্থ্য মহলে।

করোনা টিকাকরণ নিয়ে প্রথম থেকেই বিভিন্ন ধরনের অভিযোগ উঠে আসছে। এবার উঠল আরও গুরুতর অভিযোগ। একই ছাত্রকে একই দিনে পরপর দুবার টিকাকরণের অভিযোগ উঠল পশ্চিম মেদিনীপুর ডেবরার আলোককেন্দ্র উচ্চ বিদ্যালয়ে। যা নিয়ে রীতিমতো শোরগোল পড়ে গিয়েছে। ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে স্বাস্থ্য মহলে। এই ঘটনার জন্য স্কুল কর্তৃপক্ষের গাফিলতিকেই দায়ী করছেন স্থানীয়রা।

এখন রাজ্য জুড়ে ১৫ থেকে ১৭ বছর বয়সীদের টিকাকরণ চলছে স্কুলগুলিতে। সেরকমই টিকাকরণ কর্মসূচি চলছিল ওই স্কুলে। নবম শ্রেণীর ওই ছাত্রের নাম উমেশ পাঁড়। ছাত্রের বক্তব্য, 'স্কুলে টিকাকরণের জন্য দুটি কাউন্টার খোলা হয়েছিল। আমি প্রথম কাউন্টারে গিয়ে টিকা নিয়েছিলাম। তারপরে ওর আমার হাতে একটি স্লিপ দিয়েছিল। সেই স্লিপ নিয়ে আমি বেরিয়ে আসতেই আমাকে এক ম্যাডাম টিকা দেওয়ার জন্য জোর করে দ্বিতীয় কাউন্টারে নিয়ে যান। আমি বারবার বলি যে আমার টিকা হয়ে গেছে। তার পরেও উনি বিশ্বাস করতে পারিননি। এরপর দ্বিতীয় কাউন্টারে নিয়ে গিয়ে আমাকে এক প্রকার জোর করেই আরও একবার টিকা দিয়ে দেন।'

এই ঘটনার জন্য উমেশের পরিবারের লোকেরা স্কুল কর্তৃপক্ষের গাফিলতিকেই দায়ী করছেন। পরপর দুবার টিকা নেওয়ার ফলে শারীরিক সমস্যা হওয়ার আশঙ্কা করছেন তারা। স্বাস্থ্য আধিকারিকরাও এই ঘটনার জন্য স্কুল কর্তৃপক্ষকে দায়ী করছেন। সেক্ষেত্রে পড়ুয়ার শারীরিক সমস্যা হচ্ছে কিনা সে বিষয়টিতে নজর রাখা হচ্ছে বলে জেলা স্বাস্থ্য আধিকারিক সূত্রে জানা গিয়েছে। স্কুলের প্রধান শিক্ষক ও ঘটনার কথা স্বীকার করে নিয়েছেন। ভুলবশত টিকা দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। একইসঙ্গে চিকিৎসকদের পরামর্শ নিয়ে রাতেই পড়ুয়াকে ওষুধ খাইয়ে দেওয়া হয়েছে বলে তিনি জানিয়েছেন। কীভাবে এই ভুল হল তা জানার চেষ্টা করা হচ্ছে বলে তিনি জানিয়েছেন।

বন্ধ করুন