বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Digha: সমুদ্রে স্নান করতে নেমে আচমকাই তলিয়ে গেল দশম শ্রেণির ছাত্র
সৈকতনগরী দিঘায় আছড়ে পড়ল ভিড়।

Digha: সমুদ্রে স্নান করতে নেমে আচমকাই তলিয়ে গেল দশম শ্রেণির ছাত্র

  • ঘটনার পর কিছুক্ষণের মধ্যে সাগরে দেহ উদ্ধার করা হয়। এরপর তাকে দিঘা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন।

‌মামা–মামীর সঙ্গে দিঘায় গিয়ে উদয়পুরে বেড়াতে গিয়েছিল দশম শ্রেণির ছাত্র সাগর ঢালি। এরপর সমুদ্রে স্নান করতে নেমে আচমকাই তলিয়ে যায় সে। মামা তাকে বাঁচানোর চেষ্টা করেছিলেন। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি।

জানা গিয়েছে, দশম শ্রেণির ছাত্র সাগর ঢালি কল্যাণী সেন্ট্রাল পার্ক এলাকার বাসিন্দা। সিবিএসই বোর্ডের ছাত্র সে। সম্প্রতি মামা ননীগোপাল ঘোষ ও মামী সীমা ঘোষের সঙ্গে দিঘায় বেড়াতে গিয়েছিল সে। শুক্রবার দিঘায় পৌঁছনোর পর সেখান থেকে উদয়পুরে যায় সাগর। এরপর উগয়পুরের সমুদ্রে স্নান করতে নামে সে। জানা যায়, ঢেউ ভাঙতে ভাঙতে অনেকটা চলে যায় সে। কিছুক্ষণ পর আচমকাই ভাগ্নেকে তলিয়ে যেতে দেখেন মামা ননীগোপাল। ভাগ্নেকে টেনে তোলার চেষ্টাও করেন। কিন্তু বড় একটা ঢেউ এসে সাগরকে টেনে নিয়ে চলে যায়।

ঘটনার পর কিছুক্ষণের মধ্যে সাগরে দেহ উদ্ধার করা হয়। এরপর তাকে দিঘা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানেই চিকিৎসকরা তাকে মৃত বলে ঘোষণা করেন। দেহকে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। ভাগ্নেকে হারিয়ে শোকে বিহ্বল ননীগোপাল জানান, ‘ভাগ্নেকে উদ্ধারের জন্য চিৎকার করলেও কেউ এগিয়ে আসেনি। পুলিশের সাহায্য পেলে এভাবে ভাগ্নেকে হারাতে হত না।’‌ উল্লেখ্য, দিঘায় সমুদ্রে স্নান করতে এসে তলিয়ে যাওয়ার ঘটনা আগেও ঘটেছে। এর আগে গত মে মাসে মন্দারমণিতে সমুদ্রে তলিয়ে মৃত্যু হয় দুই পর্যটকের।

বন্ধ করুন