বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Madyamik: মাধ্যমিকে পাশ করতে না পারায় আত্মঘাতী ছাত্রী
আত্মঘাতী ছাত্রী ও শোকে বিহ্বল তাঁর পরিবারের সদস্যরা

Madyamik: মাধ্যমিকে পাশ করতে না পারায় আত্মঘাতী ছাত্রী

  • জানা যায়, দু বছর আগে রেললাইনে কাটা পড়ে মারা যান মেঘার বাবা। এরপর থেকে খুবই কষ্টে সংসার চলত তাঁদের। আর্থিক অনটনের মধ্যে তাদের সংসার চলত।

‌মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাশ করতে পারেননি। অনলাইনে পরীক্ষার ফল দেখে আত্মঘাতী হন এক ছাত্রী। মর্মান্তিক এই ঘটনাটি ঘটেছে নদিয়ার ফুলিয়ার প্রফুল্ল নগর গ্রামে। গোটা ঘটনাকে কেন্দ্র করে শোকের ছায়া নেমে এসেছে এলাকায়।

পরিবারের সদস্যদের তরফে জানা যায়, ইন্টারনেটে রেজাল্ট দেখার পর বাড়ি থেকে বেরিয়ে যান ফুলিয়া বালিকা বিদ্যালয়ের ছাত্রী মেঘা সরকার। স্কুলে রেজাল্ট আনতে যাচ্ছি বলে বেরিয়ে যায় সে। এরপর বেশ কিছুক্ষণ কেটে যায়। কিন্তু সে বাড়ি ফেরেনি। এরপরই পরিবারের সদস্যরা খোঁজাখুজি শুরু করেন। বন্ধু বান্ধবকে ফোন করা শুরু হয়। পুলিশে খবর দেওয়া হয়। কিছুক্ষণ পর রেললাইনের ধার থেকে ছাত্রীর দেহ উদ্ধার করেন রানাঘাট থানার জিআরপি।

জানা যায়, দু-বছর আগে রেললাইনে কাটা পড়ে মারা যান মেঘার বাবা। এরপর থেকে খুবই কষ্টে সংসার চলত তাঁদের। আর্থিক অনটনের মধ্যে তাদের সংসার চলত। আর্থিক অনটনের মধ্যেও মাধ্যমিক পরীক্ষায় পাশ করার স্বপ্ন দেখেছিল সে। কিন্তু সেই স্বপ্ন তার পূরণ না হওয়ায় শেষ পর্যন্ত আত্মহত্যার পথই বেছে নিলেন মেঘা। অকালে ছাত্রী আত্মহত্যার পথ বেছে নেওয়ায় শোকে বিহ্বল স্কুলের শিক্ষকরাও। তাঁদের মতে, পাশ, ফেল তো জীবনের অঙ্গ। কিন্ত তাই বলে আত্মহত্যার পথ বেছে নিয়ে নিজের জীবনকে শেষ করে দেওয়ার কোনও মানে হয় না।

বন্ধ করুন