বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Student suicide: HS-এ ফেল করলেই সম্পর্ক শেষ, প্রেমিকের শর্ত পূরণ করতে না পারায় আত্মঘাতী ছাত্রী

Student suicide: HS-এ ফেল করলেই সম্পর্ক শেষ, প্রেমিকের শর্ত পূরণ করতে না পারায় আত্মঘাতী ছাত্রী

আত্মঘাতী ছাত্রী। প্রতীকী ছবি

পূর্বাঞ্চল হাইস্কুলের ছাত্রী ছিল আশা সাহা। এক যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল আশার। তবে সেই যুবক তাকে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন উচ্চমাধ্যমিকে ফেল করলে সম্পর্ক রাখবেন না। উচ্চমাধ্যমিকের ফল জানার পরে ওই যুবক সোশ্যাল মিডিয়ায় অন্য একটি মেয়ের ছবিও পোস্ট করে।

প্রেমিকের শর্ত ছিল উচ্চমাধ্যমিকে পাশ করতে হবে। আর পাশ করতে না পারলে সম্পর্ক শেষ হয়ে যাবে। কিন্তু, প্রেমিকের শর্ত পূরণ করতে পারেনি উচ্চমাধ্যমিকের এক পরীক্ষার্থী। উচ্চমাধ্যমিকে ফেল করার পরে ছাত্রীটি সম্পর্ক ভেঙে যাওয়ার ভয়ে হতাশায় ভুগছিল। অবশেষে চরম সিদ্ধান্ত নিল ছাত্রী। হাতের শিরা কেটে আত্মঘাতী হল ওই পড়ুয়া। ঘটনাটি ঘটেছে জলপাইগুড়ির সেনপাড়া এলাকায়। আত্মঘাতী ছাত্রীর নাম আশা সাহা।

পুলিশ এবং স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, পূর্বাঞ্চল হাইস্কুলের ছাত্রী ছিল আশা সাহা। এক যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক ছিল আশার। তবে সেই যুবক তাকে হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন উচ্চমাধ্যমিকে ফেল করলে সম্পর্ক রাখবেন না। উচ্চমাধ্যমিকের ফল জানার পরে ওই যুবক সোশ্যাল মিডিয়ায় অন্য একটি মেয়ের ছবিও পোস্ট করে। তা দেখার পর থেকে হতাশায় ভুগছিল ছাত্রীটি। এরপর বৃহস্পতিবার বিকেলে হাতের শিরা কেটে গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যার চেষ্টা করে। পরিবার সদস্যরা তাকে উদ্ধার করে জলপাইগুড়ি মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে নিয়ে যায়। সেখানে চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন। এই ঘটনায় গতকাল বিকেলে ওই যুবকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ জানায় মৃতার পরিবার।

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, ওই ছাত্রী খুবই দরিদ্র পরিবারের। তার বাবা একজন রিক্সা চালক এবং মা বাড়ি বাড়ি পরিচারিকার কাজ করেন। স্থানীয়দের বক্তব্য, পড়াশোনায় খুব একটা খারাপ ছিল না আশা। তবে পরিবারের আর্থিক সামর্থ্য না থাকায় আলাদা করে গৃহশিক্ষক রাখতে পারেনি। সে নিজেই পড়াশোনা অনেকটাই এগিয়ে নিয়ে গিয়েছিল। সম্প্রতি বেলাকোবার এলাকার ওই যুবকের সঙ্গে সোশ্যাল মিডিয়ায় পরিচয় হয়েছিল আশার। তাদের সম্পর্ক অনেকটা এগিয়েছিল। ছাত্রীর মা জোৎস্না সাহার অভিযোগ, ওই যুবক তাকে উচ্চমাধ্যমিকে পাশ করার জন্য চাপ দিয়েছিল। পাশ না করলে সম্পর্ক রাখবে না বলেও হুঁশিয়ারি দিয়েছিল। কিন্তু তার মেয়ে ফেল করার পর মানসিক চাপে ছিল।

মেয়েটির পরিবারের অভিযোগ, বুধবার ফল ঘোষণার পরেই আশা মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে। তবে সেই অবস্থায় তার পাশে না থেকে ওই যুবক অন্য এক মেয়ের ছবি সোশ্যাল মিডিয়ায় পোস্ট করে। তাতে আরও মানসিকভাবে ভেঙে পড়ে আশা। এই ঘটনায় কোতোয়ালি থানায় যুবকের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানিয়েছে পরিবার। আশার মা জ্যোৎস্না এই ঘটনায় ওই যুবকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবি জানিয়েছেন। এদিকে, অভিযোগ পাওয়ার পর তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

এই খবরটি আপনি পড়তে পারেন HT App থেকেও। এবার HT App বাংলায়। HT App ডাউনলোড করার লিঙ্ক https://htipad.onelink.me/277p/p7me4aup

বাংলার মুখ খবর
বন্ধ করুন

Latest News

রোহিত হলেন পরবর্তী ধোনি এবং সৌরভ- বড় সার্টিফিকেট মাহির ঘনিষ্ট ভারতের প্রাক্তনীর করোনা-যোদ্ধা শৈলজা সহ কেরলের ২০ আসনে প্রার্থী ঘোষণা করে দিল এলডিএফ জিতে ইস্টবেঙ্গলের রক্তচাপ বাড়াল পঞ্জাব! কোথায় মোহনবাগান? রইল ISL-র পয়েন্ট টেবিল জনগর্জন সভায় একটা বিশেষ কাজ করতে হবে এমএলএ-এমপিদের, নির্দেশ দিল তৃণমূল ১০ বছরের প্রেম, শিখ ও খ্রিস্টান রীতিতে মার্চেই বিয়ে সারছেন তাপসী, পাত্রকে চেনেন? সন্দেশখালি নিয়ে তৃণমূলকে মণিপুর মনে করালেন নির্মলা, পাল্টা জবাব দিল দল মাত্র ১০৭ রানে GG-কে গুঁড়িয়ে,৮ উইকেট ম্যাচ জিতল RCB,উঠে পড়ল লিগ টেবলের মগডালে বুধে কি বাংলার আবহাওয়ায় 'হাওয়া বদল'? বসন্তে বৃষ্টি আর কতদিন! রইল ওয়েদার আপডেট ‘সব দোষ শুধু শ্রাবন্তীর!’ অনুপম-কাঞ্চনের আগে ৩টে বিয়ে সেরেছেন এই বাঙালি তারকারা রাজ্যসভা ভোটে উত্তরপ্রদেশে লাইমলাইটে ক্রস ভোটিং! ৮ টি আসন বিজেপির, সপা পেল ২ টি

Copyright © 2024 HT Digital Streams Limited. All RightsReserved.