বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সবুজ শ্যাওলায় ঢাকা পড়েছিল স্কুল, অভিনব উদ্যোগে হাল ফেরাল ছাত্র–শিক্ষকরা
বন্ধ স্কুল রঙিন তুলির টানে সাজিয়ে তুলেছে বাজিতপুর হাইস্কুলের ছাত্রছাত্রী এবং শিক্ষকরা।
বন্ধ স্কুল রঙিন তুলির টানে সাজিয়ে তুলেছে বাজিতপুর হাইস্কুলের ছাত্রছাত্রী এবং শিক্ষকরা।

সবুজ শ্যাওলায় ঢাকা পড়েছিল স্কুল, অভিনব উদ্যোগে হাল ফেরাল ছাত্র–শিক্ষকরা

  • তাতে স্কুলগুলিরও যেমন হাল ফিরেছে, তেমনি স্কুলের মুখও দেখতে পেল ছাত্রছাত্রীরা। তবে সবটাই হয়েছে কোভিড–বিধি মেনে।

করোনাভাইরাসের জেরে দীর্ঘদিন স্কুল বন্ধ রয়েছে। শহর থেকে জেলা একই ছবি সর্বত্র। স্কুলের দরজা বন্ধ ছাত্রছাত্রীদের জন্য। কবে তা খুলবে সেই নিশ্চয়তা নেই। তার ফলে দীর্ঘদিন ধরে অব্যবহৃত স্কুলে জমেছে আগাছা থেকে শ্যাওলা। আর তার জেরে জঙ্গলে পরিণত হয়েছে স্কুল চত্বর। আবার এখন নাগাড়ে বর্ষা চলছে। সবমিলিয়ে স্কুলগুলি পরিচর্যার অভাবে অত্যন্ত খারাপ অবস্থা হয়ে পড়েছে।

কোথাও কোথাও সবুজ শ্যাওলার আস্তরণ জমে উঠেছে। কিন্তু নিজেদের প্রিয় স্কুলকে এভাবে দেখতে ইচ্ছে করছিল না কারও। তাই বন্ধ স্কুল রঙিন তুলির টানে সাজিয়ে তুলেছে বাজিতপুর হাইস্কুলের ছাত্রছাত্রী এবং শিক্ষকরা। ময়ুরেশ্বর–১ ব্লকের এই বিদ্যালয়ে বিভিন্ন দেওয়ালে শিক্ষক ও ছাত্রছাত্রীরা রংতুলিতে নিজেদের মনের ভাব ফুটিয়ে তুলেছেন। তাতে স্কুলগুলিরও যেমন হাল ফিরেছে, তেমনি স্কুলের মুখও দেখতে পেল ছাত্রছাত্রীরা। তবে সবটাই হয়েছে কোভিড–বিধি মেনে।

প্রধান শিক্ষক প্রশান্ত কুমার দাস জানান, যখন বিদ্যালয়ে পঠনপাঠন স্বাভাবিক হবে তখন ছাত্রছাত্রীরা যাতে বিদ্যালয়কে আরও নতুন রূপে পায় তার জন্য এই প্রচেষ্টা। এখানে পরিবেশ সচেতনতার উপর বিভিন্ন ছবিকে গুরুত্ব দিয়ে ফুটিয়ে তোলা হয়েছে। ছাত্রছাত্রীদের কাছেও এটা একটা নতুন কাজ হয়ে দাঁড়িয়েছিল। বাড়িতে থেকে তাদের একঘেয়ে লাগছিল। সেখান থেকে একটু মুক্তি পেল। এখন এই পথে বাকি স্কুলগুলিও হাঁটতে চাইছে।

বন্ধ করুন