বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পূর্বস্থলীতে বিজেপি–র হয়ে শুভেন্দুর প্রথম জনসভার পাল্টা তৃণমূলের সভায় মুখ সুজাতা
মঙ্গলবার পূর্বস্থলীর সভায় শুভেন্দু অধিকারী ও দিলীপ ঘোষ। পাশে, সুজাতা মণ্ডল খাঁ। ছবি সৌজন্য : ফেসবুক
মঙ্গলবার পূর্বস্থলীর সভায় শুভেন্দু অধিকারী ও দিলীপ ঘোষ। পাশে, সুজাতা মণ্ডল খাঁ। ছবি সৌজন্য : ফেসবুক

পূর্বস্থলীতে বিজেপি–র হয়ে শুভেন্দুর প্রথম জনসভার পাল্টা তৃণমূলের সভায় মুখ সুজাতা

  • মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ জানিয়েছেন, ২৪ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার সেখানেই তৃণমূলের সভা হবে। আর তাতে অন্যতম বক্তা হিসেবে থাকবেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁয়ের স্ত্রী সুজাতা মণ্ডল খাঁ।

রোড শো–র পাল্টা রোড শো। জনসভার পাল্টা জনসভা। বোলপুরে অমিত শাহর বিশাল রোড শো–র পাল্টা সেখানেই জনসভা ও মিছিল করতে চলেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। আর এবার শুভেন্দু অধিকারীর জনসভার স্থানে পাল্টা তৃণমূলের জনসভায় মুখ হতে চলেছেন সদ্য পদ্মফুল শিবির থেকে ঘাসফুল শিবিরে যোগ দেওয়া সুজাতা মণ্ডল খাঁ। মঙ্গলবার এমনই জানিয়েছেন পূর্ব বর্ধমান জেলা তৃণমূল সভাপতি তথা রাজ্যের প্রাণিসম্পদ বিকাশ দপ্তরের মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ।

বিজেপি–তে যোগ দেওয়ার পর মঙ্গলবার প্রথম জনসভায় অংশ নিলেন পশ্চিমবঙ্গের প্রাক্তন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। আর এদিন পূর্ব বর্ধমানের কালনার পূর্বস্থলীর ওই সভায় মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ও তৃণমূলের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উরে পরপর আক্রমণ করে গিয়েছেন তিনি। এবার পূর্বস্থলীর সেই একই জায়গায় সভা করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্যের শাসকদল। এদিন মন্ত্রী স্বপন দেবনাথ জানিয়েছেন, ২৪ ডিসেম্বর, বৃহস্পতিবার সেখানেই তৃণমূলের সভা হবে। আর তাতে অন্যতম বক্তা হিসেবে থাকবেন বিজেপি সাংসদ সৌমিত্র খাঁয়ের স্ত্রী সুজাতা মণ্ডল খাঁ।

উল্লেখ্য, সোমবার বিজেপি থেকে তৃণমূলে যোগ দিয়ে সুজাতা বলেছিলেন, ‘‌আমার দৃঢ় বিশ্বাসী, আগামীদিনে প্রিয় দাদা অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় এবং মমতা দিদি আমায় একেবারে নেত্রী করে তুলবেন।’‌ আর এখন তাই দেখা যাচ্ছে। দলত্যাগী শুভেন্দুকে পাল্টা আক্রমণ করতে সুজাতার ওপরই ভরসা করল রাজ্যের শাসকদল। জানা গিয়েছে, বৃহস্পতিবার পূর্বস্থলীর সভায় থাকবেন তৃণমূলের মুখপাত্র কুণাল ঘোষও।

এদিকে, এদিন দলবদল করে প্রথম সভাতেই পুরনো দলের নেত্রীকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন বিজেপি নেতা শুভেন্দু অধিকারী। পূর্বস্থলীর দলীয় সভা থেকে নাম না করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আক্রমণ করে তিনি বলেন, ‘‌তৃণমূল কংগ্রেস কোম্পানিকে বলব, তার নেত্রীকে বলব, নিজের দমে যদি মুখ্যমন্ত্রী হতেন তা হলে ২০০১ সালেই হয়ে যেতেন। নন্দীগ্রামের ওই শবদেহগুলোর ওপরে দাঁড়িয়ে মুখ্যমন্ত্রী হয়েছেন।’‌ এবার এর পাল্টা কি দিতে পারবেন সুজাতা? সেটাই এখন দেখার।

বন্ধ করুন