বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > অর্জুন সিংয়ের অবস্থান উনিই বলতে পারবেন: সুকান্ত মজুমদার
সুকান্ত মজুমদার। নিজস্ব ছবি।

অর্জুন সিংয়ের অবস্থান উনিই বলতে পারবেন: সুকান্ত মজুমদার

  • অর্জুন সিংয়ের তৃণমূলে যোগদান প্রসঙ্গে প্রশ্নের মুখে সুকান্ত মজুমদার বলেন, ‘বিষয়টি শীর্ষ নেতৃত্ব দেখছে। তাদের সঙ্গে অর্জুন সিংয়ের বেশ কয়েকবার কথা হয়েছে। আশা করি সমাধান হয়ে যাবে।’

বিজেপি সাংসদ অর্জুন সিংয়ের সাম্প্রতিক মন্তব্য নিয়ে রাজনৈতিক মহলে শুরু হয়েছে তুমুল জল্পনা। অনেকে বলছেন, অর্জুনের তৃণমূলে ফেরা এখন সময়ের অপেক্ষা। এই পরিস্থিতিতে অর্জুন সিংকে নিয়ে প্রশ্নের মুখে চাঞ্চল্যকর জবাব দিলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদার। রবিবার দক্ষিণ দিনাজপুরে এক সাংবাদিক বৈঠকে সতিনি বলেন, ‘অর্জুনের অবস্থান তিনিই বলতে পারবেন।’

এদিন অর্জুন সিংয়ের তৃণমূলে যোগদান প্রসঙ্গে প্রশ্নের মুখে সুকান্ত মজুমদার বলেন, ‘বিষয়টি শীর্ষ নেতৃত্ব দেখছে। তাদের সঙ্গে অর্জুন সিংয়ের বেশ কয়েকবার কথা হয়েছে। আশা করি সমাধান হয়ে যাবে।’

অর্জুনের রাজনৈতিক অবস্থান প্রসঙ্গে সুকান্ত মজুমদার বলেন, ‘অর্জুন সিংয়ের বর্তমান রাজনৈতিক অবস্থান কী তা তিনিই বলতে পারবেন। এই নিয়ে রাজ্য বিজেপির কোনও বক্তব্য নেই।’

সুকান্ত মজুমদারের এই মন্তব্যে জল্পনায় আরও হাওয়া লেগেছে। রাজনৈতিক বিশেষজ্ঞদের একাংশের মতে, অর্জুনের তৃণমূলে ফেরা পাকা। তাই এব্যাপারে কোনও মন্তব্য করে বিতর্ক বাড়াতে চাইছে না রাজ্য বিজেপি। তাতে অর্জুনেরই দলবদলে সুবিধা হবে।

বলে রাখি, সম্প্রতি পাটচাষি ও চটকল শ্রমিকদের স্বার্থ নিয়ে সরব হয়েছেন অর্জুন সিং। তাঁর দাবি, কেন্দ্রীয় সরকারের নীতি চটকল শ্রমিক ও পাটচাষিদের বিরোধী। তারা প্লাস্টিক ব্যবহারের পক্ষে যারা তাদের হয়ে কাজ করছে। চটকল শ্রমিকদের সমস্যা সমাধানে উদ্যোগী হওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে চিঠি লিখেছেন তিনি।

 

এই নিয়ে আলোচনার জন্য শনিবার অর্জুনকে দিল্লিতে জরুরি তলব করেন কেন্দ্রীয় বস্ত্র প্রতিমন্ত্রী পীযূষ গোয়েল। রবিবার কলকাতায় ফিরেও যদিও অর্জুনের সুর তেমন বদলায়নি। এদিন তিনি বলেন, ললিপপ দিয়ে তাঁকে ভুলিয়ে রাখা যাবে না।

 

 

 

বন্ধ করুন