বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শুভেন্দু ও তাঁর অনুগামীদের ফলে কোণঠাসা হওয়ার আশঙ্কা, ক্ষোভ পুরনো BJP কর্মীদের
শুভেন্দু অধিকারী। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)
শুভেন্দু অধিকারী। (ফাইল ছবি, সৌজন্য ফেসবুক)

শুভেন্দু ও তাঁর অনুগামীদের ফলে কোণঠাসা হওয়ার আশঙ্কা, ক্ষোভ পুরনো BJP কর্মীদের

  • বিক্ষুব্ধ কর্মীদের আশঙ্কা, শুভেন্দু এবং তাঁর তৃণমূলের অনুগামীদের দলবদলের ফলে পুরনো বিজেপি কর্মীরা কোণঠাসা হয়ে পড়বেন।

এবার চা–চক্রে যোগ দিতে এসে দলীয় কর্মীদের সমালোচনা এবং হাজারো প্রশ্নের মুখে পড়লেন বিজেপির কাঁথি সাংগঠনিক জেলার সভাপতি অনুপ চক্রবর্তী। বিক্ষুব্ধ কর্মীদের আশঙ্কা, শুভেন্দু অধিকারী এবং তাঁর অনুগামীদের ফলে পুরনো বিজেপি কর্মীরা কোণঠাসা হয়ে পড়বেন। এই নিয়ে জোর সমস্যার মুখে পড়েছেন তিনি। একদিন আগেই দলীয় কর্মসূচিতে বিশৃঙ্খলার জন্য খড়গপুরে সভার মাঝপথেই ফিরে যেতে হয়েছিল বিজেপির রাজ্য সভাপতি তথা সাংসদ দিলীপ ঘোষকে।

বিজেপি সূত্রের খবর, কাঁথির দিঘা বাইপাস এলাকায় চা–চক্রের আয়োজন করা হয়েছিল। সেখানে শহরের বিভিন্ন ওয়ার্ডের সাংগঠনিক নেতাদের সঙ্গে উপস্থিত হন জেলা (কাঁথি) সভাপতি অনুপ চক্রবর্তী। সেখানে দলের স্থানীয় নেতা কর্মীদের একাংশ জানান, শুভেন্দু ঘনিষ্ঠ একাধিক তৃণমূল নেতা বিজেপিতে যোগ দিচ্ছেন বা দিতে চাইছেন। যাঁরা ইতিমধ্যেই দলবদল করেছেন, তাঁদের অনেকের বিরুদ্ধে আমজনতার ক্ষোভ রয়েছে। ফলে দলের প্রচারে গিয়ে বিজেপি কর্মীদের হাজারো প্রশ্নের মুখে পড়তে হচ্ছে। সুতরাং বোঝা যাচ্ছে, তৃণমূল থেকে আসা নেতা–কর্মীদের অনেকেই ভালভাবে নিচ্ছেন না। এখানে আদি–নব্য সমস্যা তৈরি হচ্ছে।

বিজেপি কর্মীদের দাবি, তাঁরা ‘মেরা বুথ সবচেয়ে মজবুত’ কর্মসূচি শুরু করেছেন। সেখানে তৃণমূলের পুরনো ‘মুখ’ যাঁরা, তাঁদের কেন বিজেপিতে নেওয়া হল, তা নিয়ে প্রকাশ্যে প্রশ্নের মুখে পড়তে হচ্ছে। এই বিষয়ে বিজেপি‌র কাঁথি সাংগঠনিক জেলা সভাপতি অনুপ বলেন, ‘বিভিন্ন দল থেকে যাঁরা আমাদের সঙ্গে দলে যোগ দিচ্ছেন তাঁদেরকে নিয়ে দল কী কৌশন নিচ্ছে, সে সম্পর্কেই জানার চেষ্টা করেছিল কর্মীরা। কোনও ক্ষোভ-বিক্ষোভ নেই। সব ঠিক আছে।’‌

বন্ধ করুন