বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বিরোধী দলনেতার গাড়ি আটকে লাউড স্পিকারে ‘গদ্দার হঠাও’ স্লোগান তুলল তৃণমূল
শুভেন্দু অধিকারী। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
শুভেন্দু অধিকারী। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

বিরোধী দলনেতার গাড়ি আটকে লাউড স্পিকারে ‘গদ্দার হঠাও’ স্লোগান তুলল তৃণমূল

  • রাত ১০ নাগাদ বৈঠক সেরে ফেরার পথে ফের শুভেন্দু অধিকারীকে বাধা দেন তৃণমূল কর্মীরা। পুলিশ পরিস্থিতি সামাল দেয়। বারবার তৃণমূলের দাপাদাপিতে তমলুক – মেছেদা রাজ্য সড়কে ব্যাপক যানজট সৃষ্টি হয়।

পূর্ব মেদিনীপুরে ফের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীকে বাধা দেওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। রবিবার এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে উত্তেজনা ছড়ায় তমলুক – মেছেদা রাজ্য সড়কে। শুভেন্দু অধিকারীর গাড়ি আটকে লাউড স্পিকারে ‘গদ্দার হঠাও’ স্লোগান দেয় তৃণমূল। ঘটনার জেরে ব্যস্ত রাস্তায় ব্যাপক যানজট তৈরি হয়।

রবিবার সন্ধ্যায় তমলুক পুরসভার ২০ নম্বর ওয়ার্ডে দলীয় বৈঠক করতে যান শুভেন্দু অধিকারী। অভিযোগ, যাওয়ার পথে রাজ্য সড়কের ওপর পথ অবরোধ করে বিক্ষোভ দেখায় তৃণমূল। লাউড স্পিকারে ‘গদ্দার হঠাও’ স্লোগান দেয় তারা। খবর পেয়ে সেখানে পৌঁছয় পুলিশ ও RAF. বেশ কিছুক্ষণ আটকে থাকার পর গন্তব্যের উদ্দেশে যাত্রা করে শুভেন্দুর গাড়ি। তবে এখানেই শেষ হয়নি অশান্তি।

রাত ১০ নাগাদ বৈঠক সেরে ফেরার পথে ফের শুভেন্দু অধিকারীকে বাধা দেন তৃণমূল কর্মীরা। পুলিশ পরিস্থিতি সামাল দেয়। বারবার তৃণমূলের দাপাদাপিতে তমলুক – মেছেদা রাজ্য সড়কে ব্যাপক যানজট সৃষ্টি হয়।

ঘটনায় বিজেপির প্রতিক্রিয়া, তৃণমূলের পাড়ার গুন্ডাদের গায়ে হাত দেওয়ারও ক্ষমতা নেই পুলিশের। গোটা ঘটনা দাঁড়িয়ে দাঁড়িয়ে দেখেছে তারা। রাজ্যের বিরোধী দলনেতার গাড়ি আটকে তাণ্ডব চলেছে। এতেই বোঝা যায় রাজ্যে গণতন্ত্রের কী অবস্থা। মানুষ সব দেখছে। তারা বিরক্ত।

 

বন্ধ করুন