বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > ২০০৭-এর কায়দায় নন্দীগ্রামে ‘পুলিশি সন্ত্রাস বিরোধী কমিটি' গড়ার ডাক শুভেন্দুর
‘পুলিশি সন্ত্রাস বিরোধী কমিটি' গড়ার ডাক শুভেন্দু অধিকারীর
‘পুলিশি সন্ত্রাস বিরোধী কমিটি' গড়ার ডাক শুভেন্দু অধিকারীর

২০০৭-এর কায়দায় নন্দীগ্রামে ‘পুলিশি সন্ত্রাস বিরোধী কমিটি' গড়ার ডাক শুভেন্দুর

  • শুভেন্দু অধিকারীর অভিযোগ, তৃণমূল সরকারের অধীনে থাকা পুলিশ নন্দীগ্রামে সন্ত্রাস চালাচ্ছে।

পুলিশের পোশাকে বিজেপি কর্মীদের মারধরের অভিযোগে উত্তপ্ত হয়েছে পূর্ব মেদিনীপুরের ময়না। অভিযোগের আঙুল উঠেছে তৃণমূল আশ্রিত দুষ্কৃতীদের দিকে। আর এই আবহে ঘটনায় জখম দুই বিজেপি কর্মী মধুসূদন রানা ও জয়দেব রানাকে তমলুক জেলা হাসপাতালে দেখতে যান শুভেন্দু অধিকারী। সেখানেই পুলিশের বিরুদ্ধে সুর চড়ান শুভেন্দু। এর আগেই নন্দীগ্রামে দাঁড়িয়ে বিজেপি বিধায়ক ২০০৭ সালের কায়দায় পুলিশি সন্ত্রাস বিরোধী কমিটি গড়ার ডাক দেন।

শুভেন্দু এদিন প্রকাশ্য জনসভায় দাঁড়িয়ে অভিযোগ করেন যে তৃণমূল সরকারের অধীনে থাকা পুলিশ নন্দীগ্রামে সন্ত্রাস চালাচ্ছে। এই আবহে বাম জমানার ভূমি রক্ষা কমিটির আদলে পুলিশি সন্ত্রাস বিরোধী কমিটি গড়ার ডাক দেন রাজ্যের বিরোধী দলনেতা। শুভেন্দুর অভিযোগ, নন্দীগ্রামে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হচ্ছে।

এর আগে 'নন্দীগ্রাম চলো' অভিযানেরও ডাক দিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। এই আবহে সরকার ও প্রশাসনের বিরুদ্ধে সুর চড়িয়ে শুভেন্দু নন্দীগ্রামে দাঁড়িয়ে বলেন, ‘জঙ্গি আন্দোলন নয়, গণতান্ত্রিক ভাবেই আন্দোলনের মাধ্যমে সঠিক পথ খুঁজে নেবে নন্দীগ্রাম।’ তাঁর অভিযোগ, ‘এখনও পর্যন্ত ১০৫টি মিথ্যে মামলা দায়ের করা হয়েছে বিজেপি কর্মী সমর্থকদের বিরুদ্ধে। রাজ্য পুলিশ ছাড়া যদি অন্য কোনও সংস্থা মামলাগুলির তদন্ত করে তাহলে আসল ঘটনা সামনে আসবে।’ তিনি আরও বলেন, ‘পাপ কখনো কাউকে ছাড়ে না! নন্দীগ্রাম আন্দোলনের সময় যেসব পুলিশ কর্তা ছিলেন তাদের প্রত্যেকেরই খোঁজ নিয়ে দেখুন অসুখে ভুগছেন। সব কিছু খাতায় লেখা আছে কোনও কিছুই ছেড়ে দেওয়া হবে না। মিথ্যা মামলায় ফাঁসানো হয়েছে, মেয়েদের উপর অত্যাচার হয়েছে, উপর ওয়ালা আছেন কেউ ছাড়া পাবে না।’

এদিকে ময়নার ঘটনার প্রেক্ষিতে শুভেন্দুর বক্তব্য, ‘ময়নার বাকচা গ্রামে বিজেপি ভীষণ শক্তিশালী। তৃণমূল নিশ্চিহ্ন হয়ে গিয়েছে। তাই পুলিশকে দিয়ে এসব করাচ্ছে। তৃণমূল ওদের বেতন দিয়েছে, পড়াশোনা শিখিয়েছে। ময়নার এসপির নেতৃত্বে এসডিপিও, এসআই-রা এখানে গুন্ডারাজ চালাচ্ছে। আমাদের কাছে সমস্ত তথ্য প্রমাণ রয়েছে।’

 

 

বন্ধ করুন