বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > খেজুরি দিবসে শুভেন্দুর মুখে ফিরল ‘বন্দেমাতরম’, আশায় বুক বাঁধছে তৃণমূল
মঙ্গলবার খেজুরি দিবসের অনুষ্ঠানে শুভেন্দু অধিকারী
মঙ্গলবার খেজুরি দিবসের অনুষ্ঠানে শুভেন্দু অধিকারী

খেজুরি দিবসে শুভেন্দুর মুখে ফিরল ‘বন্দেমাতরম’, আশায় বুক বাঁধছে তৃণমূল

  • শুভেন্দু এদিনের মিছিল শেষে বলেন, ‘এই শান্তি, গণতন্ত্র ও বাকস্বাধীনতা চিরস্থায়ী হোক। আমি ২০১০ সালে এসেছিলাম। ২০১১ – ১৯ সালে এসেছিলাম। আজ ২০ সালেও এলাম। জয় হিন্দ, বন্দেমাতরম’।

ফারাক ২৪ দিনের, ফের শুভেন্দু অধিকারীর মুখে ফিরল বন্দেমাতরম ধ্বনি। নন্দীগ্রাম দিবস থেকে খেজুরি দিবসে বদলে গেল ‘দাদা’-র স্লোগান। অনেকেরই দাবি, সৌগত রায়ের সঙ্গে সোমবারের বৈঠকের ফলেই শুভেন্দুর মুখে ফিরেছে ‘বন্দেমাতরম’ স্লোগান। 

মঙ্গলবার খেজুরি দিবসে পূর্ব মেদিনীপুরের বাঁশগোড়া থেকে কামারদা পর্যন্ত মিছিল করেন শুভেন্দু অধিকারী। মিছিলে হাজির ছিলেন খেজুরির তৃণমূল বিধায়ক রণজিৎ মণ্ডল ও কাঁথি দক্ষিণের তৃণমূল বিধায়ক বনশ্রী মাইতি। শুভেন্দুর এদিন শুভেন্দুর মুখে ‘বন্দেমাতরম’ ধ্বনি শুনে তাঁকে নিয়ে ফের আশায় বুক বাঁধছে তৃণমূল। 

শুভেন্দু এদিনের মিছিল শেষে বলেন, ‘এই শান্তি, গণতন্ত্র ও বাকস্বাধীনতা চিরস্থায়ী হোক। আমি ২০১০ সালে এসেছিলাম। ২০১১ – ১৯ সালে এসেছিলাম। আজ ২০ সালেও এলাম। জয় হিন্দ, বন্দেমাতরম’।

নন্দীগ্রাম ও খেজুরির আন্দোলনের সঙ্গে তিনি কতটা ওতোপ্রত ভাবে জড়িত তা বারবার বোঝানোর চেষ্টা করেছেন শুভেন্দু অধিকারী। এদিনও খেজুরিতে তিনি বার্তা দিলেন, আমি তোমাদেরই লোক। 

 

বন্ধ করুন