বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > এবার বারাসতেও শুভেন্দুর নামে পোস্টার, নেপথ্যে ‘দাদার অনুগামীরা’
বারাসাত শহর জুড়ে প্রায় ৪০টি শুভেন্দু অধিকারীর ছবি–সহ দাদার অনুগামী প্রচারিত পোস্টার ফেলল এক ভ্যান চালক।
বারাসাত শহর জুড়ে প্রায় ৪০টি শুভেন্দু অধিকারীর ছবি–সহ দাদার অনুগামী প্রচারিত পোস্টার ফেলল এক ভ্যান চালক।

এবার বারাসতেও শুভেন্দুর নামে পোস্টার, নেপথ্যে ‘দাদার অনুগামীরা’

  • নেই দলীয় প্রতীক। নেই দলনেত্রীর ছবিও। তবে তিনি আছেন স্বহিমায়। বারাসতে পোস্টারের মাধ্যমে উদয় শুভেন্দু অধিকারীর।

নেই দলীয় প্রতীক। কিন্তু তিনি আছেন স্বহিমায়। আর নেই দলনেত্রীর ছবিও। এভাবেই উত্তর ২৪ পরগণার বারাসাতে উদয় হলেন তিনি। হ্যাঁ, রাজ্যের পরিবহন মন্ত্রী শুভেন্দু অধিকারী। তবে সবটাই দাদার অনুগামীর দলীয় প্রতীকবিহীন পোষ্টারের মধ্য দিয়ে। বারাসাত শহরে এখন এটাই চর্চার বিষয় হয়ে উঠেছে। তবে পূর্ব মেদিনীপুর ছেড়ে বারাসাত শহরে পোস্টার পড়ায় শুভেন্দুর ব্যাপ্তি নিয়ে ভাবাচ্ছে ঘাসফুল শিবিরকে।

দেখা গেল, বারাসাত শহর জুড়ে প্রায় ৪০টি শুভেন্দু অধিকারীর ছবি–সহ এই দাদার অনুগামী পোস্টার ফেলল এক ভ্যান চালক। তাতে আরও চর্চা তুঙ্গে উঠেছে। অনেকে রসিকতা করে বলছেন, আসলে এই ভ্যান চালকও পরিবহনের সঙ্গে যুক্ত বলেই অনুগামী হয়ে উঠেছে। তবে তিনি কারও সঙ্গে কথা বলেননি। শুধু এই পোস্টার টাঙিয়ে গিয়েছেন। উত্তর ২৪ পরগনার সদর বারাসাতের ডাকবাংলো মোড় থেকে হেলা বটতলা মোড় পর্যন্ত ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের রাস্তার ধারে এই ভ্যান চালক পোস্টারে পোস্টারে শুভেন্দু অধিকারীর ছবি–সহ ব্যানার টাঙিয়ে দিল।

পরে জানা গেল এই ভ্যানচালক শুভেন্দু অনুগামী নয়। পেটের টানে তিনি এই কাজ করেছেন। আর এই ভ্যানচালক মোহিত বিশ্বাস জানান, ‘‌দাদার অনুগামীরা আমাকে ডাকবাংলা থেকে হেলা বটতলা পর্যন্ত রাস্তার ধার ধরে এই পোস্টারগুলি ফেলতে বলেছে। তার জন্য ভ্যান ভাড়া বাবদ ৪০০ টাকা এবং পোস্টার লাগানোর জন্য অতিরিক্ত ৫০০ টাকায় দিয়েছে।’‌ তবে বারাসাত শহরে শুভেন্দু অধিকারীর ছবি দিয়ে ‘আমরা দাদার অনুগামী’ নামাঙ্কিত পোস্টারে কৌতুহলের সৃষ্টি হয়েছে।

দাদা

বন্ধ করুন