বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > নানুরে ঘরের বাইরে হাজারের বেশি পরিবার, মিলছে শ্লীলতাহানির খবর, শাহকে বাহিনী পাঠানোর আর্জি স্বপনের
স্বপন দাশগুপ্ত। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)
স্বপন দাশগুপ্ত। (ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই)

নানুরে ঘরের বাইরে হাজারের বেশি পরিবার, মিলছে শ্লীলতাহানির খবর, শাহকে বাহিনী পাঠানোর আর্জি স্বপনের

ভোট-পরবর্তী হিংসার অভিযোগ।

ভোট মিটতেই গোটা রাজ্য জুড়ে রাজনৈতিক সংঘর্ষ শুরু হয়ে গিয়েছে। এবার 'ভয়ংকর বাতাবরণ' তৈরি হয়েছে নানুরে। এমনটাই দাবি করে সোমবার রাতে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের কাছে নিরাপত্তা চাইলেন তারকেশ্বরের বিজেপি প্রার্থী স্বপন দাশগুপ্ত। নানুরে নিরাপত্তাবাহিনী পাঠাতে অনুরোধ করেছেন তিনি।

টুইটারে অমিত শাহকে ট্যাগ করে স্বপন লিখেছেন, ‘‌নানুরে (বীরভূম) আশঙ্কাজনক পরিস্থিতি তৈরি হয়েছে। বিজেপি সমর্থকদের উপর প্রতিশোধ নেওয়ার চেষ্টা করা উন্মত্ত জনতার হাত থেকে বাঁচতে হাজারের বেশি (নির্দিষ্ট ধর্মের) পরিবার মাঠে নেমে এসেছে। নারীদের শ্লীলতাহানির ঘটনা বা তার চেয়ে আরও খারাপ বিষয়ের খবর মিলছে।' এরপরই অমিত শাহকে ওই এলাকায় নিরাপত্তাবাহিনী পাঠাতে অনুরোধ করেন স্বপন।

বিজেপির অভিযোগ, ফল প্রকাশ হওয়ার পর থেকেই রাজ্যজুড়ে প্রতিহিংসার রাজনীতিতে মেতে উঠেছে তৃণমূল। মৃত ৬ ব্যক্তির নাম প্রকাশ করে বিরোধীদের তরফে দাবি করা হয়, এদের সকলকেই নৃশংসভাবে খুন করেছে শাসকদলের দুষ্কৃতীরা। এমনকী, প্রশাসনের তরফেও অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে কোনও পদক্ষেপ করা হচ্ছে না বলে অভিযোগ করা হয়। এই নিয়ে রাজ্যপালের কাছে নালিশও জানিয়েছে পদ্মশিবির।

গত ২৪ ঘণ্টা ধরে একের পর এক রাজনৈতিক হিংসা ও মৃত্যুর ঘটনা ঘটেই চলেছে রাজ্য জুড়ে। সবার প্রথম শুরু হয়েছিল কলকাতা দিয়ে। এরপর রাজনৈতিক সংঘর্ষ শুরু হয় কোচবিহার থেকে শুরু করে বর্ধমান, জগদ্দল, সোনারপুরে। প্রায় সবদিকেই দেখা যাচ্ছে একই ঘটনার পুরনাবৃত্তি। রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি বজায় রাখতে রাজ্যের ডিজি ও কলকাতার পুলিশ কমিশনারের সঙ্গে বৈঠক করেন রাজ্যপাল। এমনকী, শান্তি বজায় রাখার আবেদন জানান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। তবে কোনও কিছুতেই হিংসা ও সংঘর্ষের ঘটনা কমছে না বঙ্গে। উল্টে তা বেড়েই চলেছে। এরই মধ্যে এবার নানুরে সৃষ্টি হওয়া আশঙ্কাজনক বাতাবরণের জন্য কেন্দ্রের কাছে নিরাপত্তা চাইলেন স্বপন দাশগুপ্ত।

বন্ধ করুন