বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Tapas Roy: দলের বাধ্যবাধকতায় অযোগ্যরা মন্ত্রী হয়ে বসে আছেন: তাপস রায়

Tapas Roy: দলের বাধ্যবাধকতায় অযোগ্যরা মন্ত্রী হয়ে বসে আছেন: তাপস রায়

ফাইল ছবি। 

আমার মন্ত্রিসভায় স্থান হয়নি। ১২ বছরে আড়াই বছর মন্ত্রী ছিলাম। কিন্তু দেখেছেন কখনও সিনসিয়ারিটি, সিরিয়াসনেস, শ্রম, সময় দেওয়ার অভাব? আমার যোগ্যতার ধারে কাছে নেই, তারা সব মন্ত্রী। তাতে কী হয়েছে? অনেক বাধ্যবাধকতা থাকে। তবে এটা যদি বেশি হয়ে যায় তাহলে কিন্তু আবার বিপদ।

মদনের পর তাপস রায়। তৃণমূলের অস্বস্তি যেন থামছেই না। এবার মুখ খুলে বরাহনগরের বিধায়ক দাবি করলেন, তাঁর থেকে বহু অযোগ্য লোগ দলের বাধ্যবাধকতায় মন্ত্রী হয়ে বসে আছেন। এমকী ১২ বছরে তিনি যে মাত্র আড়াই বছর মন্ত্রী ছিলেন সেকথাও মনে করান তিনি।

সোমবার এক দলীয় সভায় তাপস রায়কে বলতে শোনা যায়, ‘মন্ত্রী, বিধায়ক, সাংসদ, মেয়র, পুরসভার চেয়ারম্যান, ভাইস চেয়ারম্যান, সিআইসি, কাউন্সিলর কংগ্রেস ভেঙে তৃণমূল যদি না হত, আর দিদিমণি না থাকতেন তাহলে তাদের অনেকেরই এই জায়গায় পৌঁছনো হত না। দল সব দিকে নজর রাখছে এবং যথাযথ স্থানে তাদের জায়গা দিচ্ছে। আমার মন্ত্রিসভায় স্থান হয়নি। ১২ বছরে আড়াই বছর মন্ত্রী ছিলাম। কিন্তু দেখেছেন কখনও সিনসিয়ারিটি, সিরিয়াসনেস, শ্রম, সময় দেওয়ার অভাব? আমার যোগ্যতার ধারে কাছে নেই, তারা সব মন্ত্রী। তাতে কী হয়েছে? অনেক বাধ্যবাধকতা থাকে। তবে এটা যদি বেশি হয়ে যায় তাহলে কিন্তু আবার বিপদ’।

তাপস রায়ের মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় বিজেপির সহ সভাপতি দিলীপ ঘোষ বলেন, তৃণমূলে মুষলপর্ব চলছে। পুরনোদের বাদ দিয়ে নব জোয়ার এসেছে। তাতে পুরনোরা বিপন্ন বোধ করছেন। এসব ভবিষ্যতে আরও হবে।

তাপসবাবুর মন্তব্যের প্রতিক্রিয়ায় বিধানসভার স্পিকার বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘উনি একজন বিধায়ক। সাংসদের যোগ্যতা উনি নির্ধারণ করতে পারেন না।’

 

বন্ধ করুন