বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > অসভ্য আচরণ করায় ছাত্র ক্লাসরুম থেকে বের করে দিয়েছিলেন শিক্ষক, তারপর.‌.‌.‌

অসভ্য আচরণ করায় ছাত্র ক্লাসরুম থেকে বের করে দিয়েছিলেন শিক্ষক, তারপর.‌.‌.‌

বারাসতের মহাত্মা গান্ধী মেমোরিয়াল হাই স্কুল

শিক্ষক সমীর বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌খুবই দুর্ভাগ্যজনক বিষয়।

‌অসভ্য আচরণ করায় শিক্ষক এক ছাত্রকে মারধর করে ক্লাসরুম থেকে বের করে দেয়। ছাত্রকে মারধর করার মুহূর্ত ভিডিও করে নেয় ক্লাসেরই এক ছাত্র। তারপর সেটি সোশ্যাল মিডিয়া ছড়িয়ে দেওয়া হয়। এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে শোরগোল পড়ে যায়। যদিও গোটা বিষয়টি নিয়ে শিক্ষক মহলে তীব্র প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে।

ঘটনাটি ঘটেছে বারাসতের মহাত্মা গান্ধী মেমোরিয়াল হাই স্কুলে। একাদশ শ্রেণির ইতিহাসের প্রজেক্ট জমা নিচ্ছিলেন শিক্ষক। তখন একাদশ শ্রেণির এক ছাত্র শিক্ষকের সঙ্গে অসভ্য আচরণ করে। বারবার সে এই কাজ করতে থাকে। বিরক্ত হয়ে স্কুলের ওই শিক্ষক ওই ছাত্রকে মারধর করে ক্লাস রুম থেকে বের করে দেয়। সেই মুহূর্তের ভিডিও ক্লাসের কয়েকজন ছাত্র ক্যামেরাবন্দি করে এবং তা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল করে দেয় বলে অভিযোগ।

গোটা ঘটনাটি সম্পর্কে বলতে গিয়ে ইতিহাসের সেই শিক্ষক সমীর বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‌খুবই দুর্ভাগ্যজনক বিষয়। ছাত্রটি অসভ্য আচরণ করছিল বলে আমি তাকে শাসন করতে যাই। কিন্তু সেই ভিডিও সোশ্যাল মাধ্যমে ভাইরাল হয়ে যায়। এখন যা পরিস্থিতি হয়ে গেছে ছাত্রদের শাসন করা যাবে না, শিক্ষকতা করাটাই আমাদের কাছে দুর্বিষহ হয়ে পড়েছে। এই প্রসঙ্গে স্কুলের প্রধান শিক্ষক ‌শেখ আলী হাসান বলেন, ‘‌ঘটনার সময় আমি স্কুলে ছিলাম না। ঘটনাটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। করোনা পরিস্থিতিতে অনলাইন ক্লাসের জন্য ছাত্ররা মোবাইল ফোন ব্যবহার করত। এখন অফলাইন ক্লাস শুরু হওয়ার পর সরকারি নির্দেশিকা না আসায় এখনো জোর দিয়ে মোবাইল ফোন স্কুলে আনা নিষিদ্ধ করা যায়নি। যে ছেলেটি এই ভিডিও করেছে সে অপরাধমূলক কাজ করেছে। অবশ্যই এর বিরুদ্ধে পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।’‌

বন্ধ করুন