বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > Jalpaiguri: যোগ্য তালিকায় নাম নেই, পদত্যাগ করলেন জলপাইগুড়ির স্কুল শিক্ষিকা

Jalpaiguri: যোগ্য তালিকায় নাম নেই, পদত্যাগ করলেন জলপাইগুড়ির স্কুল শিক্ষিকা

জলপাইগুড়ির বানারহাট উচ্চ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়।

২০২১ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি তিনি ওই স্কুলের শিক্ষিকা হিসেবে যোগদান করেন। আদালতের নির্দিষ্ট করে দেওয়া সময়সীমার আগেই সোমবার ভারপ্রাপ্তপ্রধান শিক্ষিকার হাতে তিনি পদত্যাগ পত্র জমা দেন। স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা জয়িতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, অনন্যা মহাপাত্র পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন।

এসএসসি নিয়োগ মামলায় বেআইনিভাবে চাকরি পাওয়া শিক্ষকদের উদ্দেশ্যে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছিল কলকাতা হাইকোর্ট। ৯ নভেম্বরের মধ্যে নিয়ম বহির্ভূতভাবে চাকরি পাওয়া শিক্ষকদের নিজে থেকে পদত্যাগ করতে বলেছিল আদালত। স্বেচ্ছায় চাকরি না ছাড়লে সরকার পদক্ষেপ করবে বলে আদালত জানিয়েছিল। সেইমতোই ইস্তফা দিলেন জলপাইগুড়ির বানারহাট উচ্চ মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়ের জীবন বিজ্ঞানের শিক্ষিকা অনন্যা মহাপাত্র।

স্কুল সূত্রের খবর, পদত্যাগের কারণ হিসেবে তিনি স্কুলকে জানিয়েছেন, যোগ্য তালিকায় নাম থাকার কারণেই পদত্যাগ করছেন। উল্লেখ্য, কলকাতা হাইকোর্টের নির্দেশের পরে স্কুল সার্ভিস কমিশন জানিয়েছিল নিয়ম বহির্ভূতভাবে নিয়োগ হয়েছে এরকম ১৮৩ জন প্রার্থীকে তারা চিহ্নিত করেছে এবং ২০ জনের সুপারিশপত্র বাতিল করেছে। সেই তালিকায় ছিলেন জলপাইগুড়ির ওই স্কুলের শিক্ষিকা।

স্কুল সূত্রে জানা গিয়েছে, ২০২১ সালের ১৮ ফেব্রুয়ারি তিনি ওই স্কুলের শিক্ষিকা হিসেবে যোগদান করেন। আদালতের নির্দিষ্ট করে দেওয়া সময়সীমার আগেই সোমবার ভারপ্রাপ্তপ্রধান শিক্ষিকার হাতে তিনি পদত্যাগ পত্র জমা দেন। স্কুলের ভারপ্রাপ্ত প্রধান শিক্ষিকা জয়িতা বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, অনন্যা মহাপাত্র পদত্যাগপত্র জমা দিয়েছেন। কারণ হিসেবে তিনি যোগ্য প্রার্থীদের তালিকা ছিলেন না বলে জানিয়েছেন। 

এই বিষয়ে জলপাইগুড়ির শিক্ষকদের সংগঠনিক নিখিলবঙ্গ শিক্ষক সমিতির সম্পাদক প্রসেনজিৎ দাস বলেন, ‘এই জেলায় এরকম ৮ জন শিক্ষক রয়েছেন যারা বেআইনিভাবে চাকরি পেয়েছিলেন। তার মধ্যে এই শিক্ষিকাও ছিলেন। তিনি পদত্যাগ করেছেন তার মানে সমস্যা তো ছিলই। তবে এতদিন ধরে তিনি বেতন পেয়েছেন সাধারণ মানুষের করের টাকায়।’ সেই টাকাও ফেরানো উচিত বলে তিনি দাবি জানিয়েছেন।

বন্ধ করুন