বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > অনলাইন পরীক্ষার সময় ইন্টারনেট সংযোগ চলে যাওয়ায় শিক্ষিকার বকুনি, আত্মঘাতী কিশোরী
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

অনলাইন পরীক্ষার সময় ইন্টারনেট সংযোগ চলে যাওয়ায় শিক্ষিকার বকুনি, আত্মঘাতী কিশোরী

  • পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, বেলঘরিয়ারই একটি স্কুলের পড়ুয়া সৃজা। বুধবার অনলাইন পরীক্ষা চলাকালীন বারবার ইন্টারনেটে সমস্যার জন্য তাঁর সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছিল। এর জেরে তাঁকে বকাবকি করেন শিক্ষিকা।

অনলাইন পরীক্ষা চলাকালীন শিক্ষিকার তিরস্কারের পর আত্মঘাতী হল এক নাবালিকা। বুধবার অনলাইন ক্লাস চলাকালীন নেটওয়ার্কে সমস্যা হওয়ায় শিক্ষিকা তাঁকে ভর্ৎসনা করেন বলে অভিযোগ। এর পরই গলায় মায়ের ওড়না পেঁচিয়ে আত্মঘাতী হয় ১১ বছরের কিশোরী সৃজা মুখোপাধ্যায়। ঘটনায় শোকের ছায়া বেলঘরিরার এমএম রোডের আবাসনে।

পরিবারের তরফে জানানো হয়েছে, বেলঘরিয়ারই একটি স্কুলের পড়ুয়া সৃজা। বুধবার অনলাইন পরীক্ষা চলাকালীন বারবার ইন্টারনেটে সমস্যার জন্য তাঁর সংযোগ বিচ্ছিন্ন হয়ে যাচ্ছিল। এর জেরে তাঁকে বকাবকি করেন শিক্ষিকা। তাঁর পরীক্ষা বাতিল করে দেন। সবার সামনে শিক্ষিকার তিরস্কারে অবসাদে ভুগতে শুরু করে ১১ বছরের ওই নাবালিকা। মা-কে সব কথা জানায় সে। দুপুরে বাড়ির সবাই ঘুমিয়ে পড়লে মায়ের ওড়না গলায় পেঁচিয়ে আত্মঘাতী হয় ওই কিশোরী।

খবর পেয়ে আবাসনে পৌঁছয় বেলঘরিয়া থানার পুলিশ। কিশোরীর দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়েছে। ঘটনায় স্কুলের বিরুদ্ধে অভিযোগ তুলেছে মৃতের পরিবার। শিক্ষিকা অহেতুক দোষারোপ করাতেই তাঁর মেয়ে অপমানে আত্মঘাতী হয়েছে বলে দাবি করেছেন মৃত কিশোরীর মা। এব্যাপারে স্কুলের তরফে কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

 

বন্ধ করুন