বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > সালিশি সভা ডেকে মারধর, অপমানে আত্মঘাতী কোচবিহারের কিশোর
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

সালিশি সভা ডেকে মারধর, অপমানে আত্মঘাতী কোচবিহারের কিশোর

  • প্রকাশ জানিয়েছেন, ঘটনার পর থেকেই চুপচাপ হয়ে যান আকাশ। শুক্রবার রাতে নিজের ঘর থেকে উদ্ধার হয় আকাশের ঝুলন্ত দেহ।

সালিশি সভায় মারধরের জেরে অপমানে আত্মঘাতী হল এক কিশোর। শনিবার কোচবিহারের মাথাভাঙার ঘটনা। মৃত যুবকের ভাইয়ের দাবি, বাবাই লোক ডেকে এনে দাদাকে মার খাইয়েছেন। তার পরই আত্মঘাতী হন আকাশ দাস (১৭)। দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে পুলিশ।

মৃতের ভাই প্রকাশ জানিয়েছেন, বছরখানেক আগে বাবা দ্বিতীয় বিয়ে করেন। পাশেই সংসার পাতেন তিনি। তার পর থেকেই শুরু হয় আকাশের সঙ্গে তাঁর অশান্তি। অভিযোগ, শুক্রবার রাতেও বাবা কার্তিক দাসের সঙ্গে আকাশের বিবাদ বাঁধে। উত্তেজিত হয় বাবার ঘরের টিভি ভেঙে দেয় কিশোর। এর পর গ্রামের লোকেদের ডেকে এনে সালিশ বসান কার্তিকবাবু। অভিযোগ সেখানে বেধড়ক মারধর করা হয় ২ ভাইকে।

প্রকাশ জানিয়েছেন, ঘটনার পর থেকেই চুপচাপ হয়ে যান আকাশ। শুক্রবার রাতে নিজের ঘর থেকে উদ্ধার হয় আকাশের ঝুলন্ত দেহ। প্রকাশের দাবি, সালিশি সভায় ছিলেন স্থানীয় তৃণমূলের নেতারাও।

যদিও সালিশি সভা বসানোর কথা অস্বীকার করেছেন কার্তিকবাবু। তিনি বলেন, ছেলে বাড়িতে ভাঙচুর করেছিল। তাই বোঝানোর জন্য কয়েকজন প্রতিবেশীকে ডেকে এনেছিলাম। কিন্তু মারধর করা হয়নি। ও যে এরকম করবে বুঝতে পারিনি।

 

বন্ধ করুন