বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > তৃণমূলের চোখরাঙানি? দখল হয়ে যাচ্ছে নিউটাউনের দুর্গাপুজো, নালিশ থানায়, আদালতে
নিউটাউনের দুর্গাপুজোও দখল করার অভিযোগ উঠেছে (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য জীবন আহমেদ/ডয়চে ভেলে)
নিউটাউনের দুর্গাপুজোও দখল করার অভিযোগ উঠেছে (ছবিটি প্রতীকী, সৌজন্য জীবন আহমেদ/ডয়চে ভেলে)

তৃণমূলের চোখরাঙানি? দখল হয়ে যাচ্ছে নিউটাউনের দুর্গাপুজো, নালিশ থানায়, আদালতে

  • স্থানীয় সূত্রে খবর, নিউ টাউন সিসি ব্লক পুজো কমিটির এলাকারই একটি মাঠে গত ৩-৪ বছর ধরে পুজো হয়ে আসছে। এদিকে এবছর সেই মাঠই চলে গিয়েছে অন্য়দের দখলে।

দখল হয়ে যাচ্ছে দুর্গাপুজো। আর সেই দখলে উসকানি দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় যুব তৃণমূল নেতৃত্বের বিরুদ্ধে। এদিকে শাসকদলের দাপটে বিশেষ মুখ খুলতে ভরসা পাচ্ছেন না স্থানীয় বাসিন্দাদের অনেকেই।  স্থানীয় সূত্রে খবর, নিউ টাউন সিসি ব্লক পুজো কমিটির এলাকারই একটি মাঠে গত ৩-৪ বছর ধরে পুজো হয়ে আসছে। এদিকে এবছর সেই মাঠই চলে গিয়েছে অন্য়দের দখলে। সেখানে ফ্লেক্সও টাঙানো হয়েছে। এর জেরেই একেবারে ধুন্ধুমার কাণ্ড। এদিকে কিছুটা বাধ্য হয়েই একটি ব্যক্তিগত জায়গায় পুজোর আয়োজন সরিয়ে নিয়ে গিয়েছে ওই পুজো কমিটি। সেই পুজো কমিটির মণ্ডপও ভেঙে দেওয়ার অভিযোগ উঠেছে। 

নিউ টাউন সিসি ব্লক পুজো কমিটি জানিয়েছে, রাস্তার পাশে মণ্ডপ তৈরি হচ্ছিল। সেই সময় স্থানীয় যুব তৃণমূল নেতার নাম করেই বহিরাগত ২৫-৩০জন হামলা চালায়। বন্দুক দেখিয়ে তারা মিস্ত্রিদের তাড়া করেছে। তৃণমূলের লোকজন ও ব্লকের কিছু লোক একযোগে আমাদের উপর হামলা চালাচ্ছে। এমনকী তাঁদের অভিযোগ, এলাকার বিধায়ক ও যুব নেতাও এই ধরনের ঘটনার নেপথ্যে রয়েছেন। এমনকী চাঁদার বিল, রেজিস্ট্রেশন নম্বর নকল করেও চাঁদা তোলা হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। এনিয়ে পুলিশের কাছেও অভিযোগ জানিয়েছেন তাঁরা। তবে তাঁদের দাবি, কিছুতেই কিছু হচ্ছে না। সমস্যা মেটাতে হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছেন তাঁরা । মুখ্য়মন্ত্রীরও হস্তক্ষেপ চাইছেন তাঁরা। তবে শাসকদলের লোকজন এই ঘটনায় তাঁদের কেউ জড়িত নন বলে দাবি করেছেন। অভিযোগ অস্বীকার করেছেন পুজোর নতুন আয়োজকরাও।  

 

বন্ধ করুন