বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > তৃণমূলের অনাস্থা, মালদায় অপসারিত বিজেপির উপপ্রধান
তৃণমূলের অনাস্থার জেরে সরে যেতে হল বিজেপির উপপ্রধানকে (নিজস্ব চিত্র)
তৃণমূলের অনাস্থার জেরে সরে যেতে হল বিজেপির উপপ্রধানকে (নিজস্ব চিত্র)

তৃণমূলের অনাস্থা, মালদায় অপসারিত বিজেপির উপপ্রধান

  • পুরাতন মালদার বিজেপি বিধায়ক গোপাল চন্দ্র সাহা বলেন, তৃণমূল কোনও নিয়ম মানে না। ওদের আরও পড়াশোনা করা দরকার।

তৃণমূলের অনাস্থায় সরে যেতে হল পুরাতন মালদা ব্লকের ভাবুক গ্রাম পঞ্চায়েতের বিজেপির উপপ্রধানকে। স্থানীয় সূত্রে খবর, এই পঞ্চায়েতের বিজেপির উপপ্রধান ছিলেন প্রভুনাথ দুবে। এদিকে তাঁর বিরুদ্ধে দুর্নীতির নানা অভিযোগ তুলে সরব হয়েছিলেন তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্যরা। এরপর তাঁর বিরুদ্ধে অনাস্থা আনা হয়। ব্লক প্রশাসনের তরফে অনাস্থা প্রস্তাবের  দিন ধার্য করা হয়। সেই মতো এদিন পঞ্চায়েতের ৮জন সদস্যই হাজির ছিলেন। কিন্তু বিরোধী দলের কোনও সদস্য এদিন হাজির ছিলেন না। স্বাভাবিকভাবে ৮-০তে অপসারন করা হয় বিজেপির উপপ্রধানকে। 

এদিকে এদিন অশান্তির আশঙ্কায় পঞ্চায়েত অফিসের বাইরে বিপুল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা ছিল। তবে চাপা উত্তেজনা থাকলেও এদিন বড় কোনও গন্ডগোল হয়নি। তৃণমূলের পঞ্চায়েত সদস্য বাবুরাম হেমব্রম জানিয়েছেন. বিরোধী দলের সদস্যরা এদিন ছিলেন না। স্বাভাবিকভাবে নিয়ম মেনেই বিজেপির উপপ্রধানকে অপসারন করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির যে অভিযোগ রয়েছে তার তদন্ত হবে। পাশাপাশি উন্নয়নকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে।

তবে বিজেপির পালটা দাবি যাবতীয় আইনকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে তৃণমূল এসব করছে। পুরাতন মালদার বিজেপি বিধায়ক গোপাল চন্দ্র সাহা বলেন, তৃণমূল কোনও নিয়ম মানে না। ওদের আরও পড়াশোনা করা দরকার। কোনও নিয়ম না মেনেই উপপ্রধানকেই অপসারণ করা হয়েছে। এটা অবৈধ মিটিং। আমরা আদালতে গিয়েছি।

 

বন্ধ করুন