বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > চন্দ্রকোনায় করোনা আক্রন্ত পরিবারে তৃণমূলের হামলার অভিযোগ, কেটে দেওয়া হল বিদ্যুৎ
হামলার পর ধাড়া পরিবারের ভিটে। 
হামলার পর ধাড়া পরিবারের ভিটে। 

চন্দ্রকোনায় করোনা আক্রন্ত পরিবারে তৃণমূলের হামলার অভিযোগ, কেটে দেওয়া হল বিদ্যুৎ

  • অভিযোগ, এর পর সহদেববাবুর বাড়ি ভাঙচুরের পাশাপাশি, তাঁকে ও তাঁর পরিবারের ২ করোনা আক্রান্তকে মারধর করেন গ্রামবাসীরা।

করোনা আক্রান্ত পরিবারের ওপর স্থানীয়দের হামলায় আহত হলেন ৩ জন। মঙ্গলবার ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুরের চন্দ্রকোনায়। করোনা আক্রান্ত পরিবারটির বাড়িতেও ভাঙচুর চালিয়েছে এলাকাবাসী। ঘটনায় উত্তেজনা ছড়িয়েছে এলাকায়। 

পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার চন্দ্রকোনা ১ নম্বর ব্লকের পাইকপাড়া গ্রামের বাসিন্দা সহাদেব ধাড়া পেশায় গ্রামীণ চিকিৎসক। তাঁর পরিবারের দুই সদস্যের কয়েকদিন আগে করোনা উপসর্গ দেখা দেয়। হোম কোয়ারেন্টাইনে রয়েছেন তাঁরা। এর পর সহদেববাবুর বাড়ির বাইরে বেরনোয় নিষেধাজ্ঞা জারি করেন স্থানীয়রা। তাঁকে চিকিৎসাকেন্দ্রে যেতে বাধা দেন এলাকাবাসী। মঙ্গলবার এই ঘটনাকে কেন্দ্র দু’পক্ষের বচসা শুরু হয়।  

অভিযোগ, এর পর সহদেববাবুর বাড়ি ভাঙচুরের পাশাপাশি, তাঁকে ও তাঁর পরিবারের ২ করোনা আক্রান্তকে মারধর করেন গ্রামবাসীরা। দফায় দফায় তিন বার হামলা হয়েছে বলে দাবি তাঁর। ছিঁড়ে দেওয়া হয়েছে বিদ্যুৎ সরবরাহকারী তার। অভিযোগ হামলায় নেতৃত্ব দেন স্থানীয় তৃণমূল নেতা বিশ্বনাথ পালুই।

গ্রামবাসীদের পালটা অভিযোগ, তাঁরা সহদেববাবুকে বাড়ির বাইরে বেরোতে বাধা দিতেই তাঁর পরিবারের সদস্যরা এলাকাবাসীর ওপর চড়াও হন। বাড়ি ভাঙচুর করে, এমনকি স্থানীয় এক মহিলার হাত ও পা মেরে ফাটিয়ে দেন তাঁরা। 

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে চন্দ্রকোনা থানার বিশাল পুলিশবাহিনী।  উভয়পক্ষই চন্দ্রকোনা থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে,পরিস্থিতি সামাল দিতে ঘটনাস্থলে রয়েছে পুলিশ।

বন্ধ করুন