বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পঞ্চায়েতে আস্থা ভোট ঘিরে ছড়াল উত্তেজনা, সাংসদকে তাড়া করল তৃণমূল
বুধবার জগন্নাথ সরকারের গাড়িতে হামলার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে।
বুধবার জগন্নাথ সরকারের গাড়িতে হামলার অভিযোগ ওঠে তৃণমূলের বিরুদ্ধে।

পঞ্চায়েতে আস্থা ভোট ঘিরে ছড়াল উত্তেজনা, সাংসদকে তাড়া করল তৃণমূল

  • জগন্নাথ সরকারকে দেখেই তাড়া করে তৃণমূল কর্মীরা। তখন সামনেই দাঁড়িয়ে ছিলেন পুলিশকর্মীরা। সাংসদের নিরাপত্তার কোনও উদ্যোগ নেননি তাঁরা।

পঞ্চায়েতে অনাস্থা বৈঠককে কেন্দ্র করে ব্যাপক চাঞ্চল্য। পঞ্চায়েতে এসে তৃণমূল বাহিনীর তাড়া খেলেন বিজেপি সাংসদ। কোনরকমে তাঁকে উদ্ধার করেন নিরাপত্তারক্ষীরা। ঘটনায় বিজেপির একাধিক নেতা-কর্মী আহত হয়েছেন বলে অভিযোগ। বুধবার এই ঘটনা নদিয়ার শান্তিপুর থানার বেলঘড়িয়া ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের।

বেলঘড়িয়া গ্রাম পঞ্চায়েতে অনাস্থা এনেছিল বিজেপি। সেইমতো প্রশাসনের তরফে বুধবার বেলঘড়িয়া ২ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের অনাস্থা বৈঠক শুরু হয়। সকাল থেকে ঘটনাস্থলে উপস্থিত ছিল বিশাল পুলিশবাহিনী। তৃণমূল কর্মীরা একে একে ঘটনাস্থলে জড়ো হয়। ঘটনাস্থলে এসে উপস্থিত হন স্থানীয় বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকার। এরপরই উত্তপ্ত হয়ে ওঠে পরিস্থিতি।

জগন্নাথ সরকারকে দেখেই তাড়া করে তৃণমূল কর্মীরা। তখন সামনেই দাঁড়িয়ে ছিলেন পুলিশকর্মীরা। সাংসদের নিরাপত্তার কোনও উদ্যোগ নেননি তাঁরা। সাংসদের নিরাপত্তারক্ষীরা তাঁকে উদ্ধার করে এলাকা ছাড়েন। তৃণমূলের হামলায় বিজেপির একাধিক নেতা কর্মী আক্রান্ত হন।

ঘটনায় তীব্র নিন্দা করেছেন সাংসদ জগন্নাথ সরকার। তিনি বলেন, পুলিশ প্রশাসন কার্যত শাসক দলের দলদাসে পরিণত হয়েছে। যদিও ঘটনার কথা অস্বীকার করেছে তৃণমূল। তাদের দাবি, সুষ্ঠুভাবে নির্বাচন চলছিল। কিন্তু উদ্দেশ্যপ্রণোদিতভাবেই বিজেপি সাংসদ এসে পরিস্থিতি উত্তপ্ত করার চেষ্টা করেছেন। পুলিশের সামনেই তাঁদেরকে আক্রান্ত হতে হয়েছে। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে রানাঘাটের এসডিপিও প্রবীর মণ্ডল। ঘটনার জেরে উত্তপ্ত এলাকা।

 

বন্ধ করুন