বিজেপির সভায় বক্তব্য রাখছেন সায়ন্তন বসু। ফাইল ছবি
বিজেপির সভায় বক্তব্য রাখছেন সায়ন্তন বসু। ফাইল ছবি

কোচবিহারে বিজেপির মঞ্চ ভাঙল তৃণমূল, পালটা পার্টি অফিস পোড়াল বিজেপি

  • পুলিশকর্মীদের সঙ্গে তুমুল বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন সায়ন্তন। এরই মধ্যে বিজেপির সভামঞ্চ ভাঙচুর করে তৃণমূল। পালটা স্থানীয় একটি তৃণমূল কার্যালয় পুড়িয়ে দেন বিজেপি কর্মীরা।

বিজেপির অভিনন্দন যাত্রা ঘিরে রণক্ষেত্রের চেহারা নিল কোচবিহারের মাথাভাঙা। বিজেপির সভামঞ্চ ভেঙে গুঁড়িয়ে দেওয়ার অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে। পালটা তৃণমূল কার্যালয় আগুনে ছাই করে দিল বিজেপি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে থালকেও এলাকায় উত্তেজনা রয়েছে।

মঙ্গলবার মাথাভাঙার গোপালপুরে ছিল বিজেপির মুখপাত্র সায়ন্তন বসুর অভিনন্দন যাত্রা। কর্মসূচির কোনও অনুমতি ছিল না বিজেপির কাছে। ফলে সকাল থেকেই সায়ন্তন-সহ অন্যান্য বিজেপি নেতাদের আটকানোর আপ্রাণ চেষ্টা করে পুলিশ। কিন্তু শেষ পর্যন্ত গোপালপুরে পৌঁছেই যান সায়ন্তন। মিছিল করে সভামঞ্চে গিয়ে বক্তব্য রাখার কথা ছিল সায়ন্তনের। কিন্তু মিছিল কিছুদূর এগোতেই বাধা দেয় পুলিশ। এর পরই ধুন্ধুমার বাধে।

পুলিশকর্মীদের সঙ্গে তুমুল বিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন সায়ন্তন। এরই মধ্যে বিজেপির সভামঞ্চ ভাঙচুর করে তৃণমূল। পালটা স্থানীয় একটি তৃণমূল কার্যালয় পুড়িয়ে দেন বিজেপি কর্মীরা। এর পর রাস্তায় দাঁড়িয়েই বক্তব্য রাখেন সায়ন্তন।

বিজেপির দাবি, তৃণমূলের পার্টি অফিসে আগুন দিয়েছে জনতা। তৃণমূলের দাবি, বিজেপির মঞ্চ ভাঙচুর করেছে সাধারণ মানুষ। এতে তাদের কোনও যোগ নেই।

ঘটনাকে কেন্দ্র করে তুমুল উত্তেজনা ছড়ায় এলাকায়। পরিস্থিতি মোকাবিলায় বিশাল পুলিশ বাহিনী মোতায়েন করা হয়েছে। রয়েছেন পদস্থ আধিকারিকরা।



বন্ধ করুন