বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > বারুইপুরে ‘‌দুয়ারে সরকার’‌ প্রকল্পের কাজে বেরিয়ে রহস্যমৃত্যু তৃণমূল বুথ সভাপতির
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

বারুইপুরে ‘‌দুয়ারে সরকার’‌ প্রকল্পের কাজে বেরিয়ে রহস্যমৃত্যু তৃণমূল বুথ সভাপতির

  • পরিবারের তরফে অভিযোগ, বিজেপি খুন করেছে সুবীর ঘোষকে। এই অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপি জানিয়েছে, ঘটনার সঙ্গে কোনও যোগ নেই বিজেপি–র।

পশ্চিমবঙ্গ সরকারের ‘‌দুয়ারে সরকার’‌ প্রকল্পের কাজ করতে গিয়ে রহস্যমৃত্যু হল বারুইপুরের আটঘড়ার তৃণমূলের বুথ সভাপতি সুবীর ঘোষের। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, সোমবার সন্ধেয় ‘‌দুয়ারে সরকার’ কর্মসূচিতে স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের ফর্ম বিলি করতে বাড়ি থেকে বের হন সুবীর ঘোষ। তার পর পরিবারের সঙ্গে তাঁর কথাও হয়। কিন্তু রাতে আর বাড়ি ফেরেননি তৃণমূলের ওই বুথ সভাপতি। রাতে বারবার তাঁর সঙ্গে যোগাযোগ করা হলেও ফোনে তাঁকে পাওয়া যায়নি। মঙ্গলবার বিকেলে বাড়ির কাছে এক পুকুর থেকে তাঁর দেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে বারুইপুর থানার পুলিশ। ঘটনাস্থলে তদন্তে গিয়েছেন বারুইপুরের আইসি, এসডিপিও ও অন্য পুলিশ আধিকারিকরা। পরিবারের তরফে অভিযোগ, বিজেপি খুন করেছে সুবীর ঘোষকে। এই অভিযোগ অস্বীকার করে বিজেপি জানিয়েছে, ঘটনার সঙ্গে কোনও যোগ নেই বিজেপি–র। পরিবারের সদস্যদের কথায়, কোনও শত্রু ছিল না সুবীরবাবুর। লোকজনের জন্য কাজ করতেন। কিন্তু যেভাবে পুকুর থেকে দেহ উদ্ধার হল তা খুন ছাড়া আর কিছুই নয়।

স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বর দাবি, স্বাস্থ্যসাথী প্রকল্পের ফর্ম আর জুতো যেখানে পড়ে ছিল তার থেকে ৬০–৭০ কিলোমিটার দূরে ছিল সুবীর ঘোষের দেহ। তা থেকেই আমাদের সন্দেহ ঘনীভূত হয়। ঘটনাস্থল দেখে আমরা নিশ্চিত যে খুন করা হয়েছে বুথ সভাপতিকে। আমাদের অনুমান, এই খুনের ঘটনায় একজন বিজেপি সমর্থক জড়িত। পাল্টা ষড়যন্ত্রের অভিযোগ তুলেছে স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। তাঁদের দাবি, এলাকার বিজেপি কর্মী–সমর্থকদের ভয় দেখানোর জন্যই এই ঘটনা।

বন্ধ করুন