বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > পূজালিতে তৃণমূল কাউন্সিলরের মাথায় কোপ, পড়ল ১৯টা সেলাই
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

পূজালিতে তৃণমূল কাউন্সিলরের মাথায় কোপ, পড়ল ১৯টা সেলাই

  • ঘটনায় বিজেপিকে কাঠগড়ায় তুলেছে তৃণমূল। তাদের দাবি, দলীয় কাউন্সিলরের ওপরে হামলা চালিয়েছে বিজেপি। অভিযোগ মানতে নারাজ স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব।

দক্ষিণ ২৪ পরগনার পূজালি পুরসভায় তৃণমূল কাউন্সিলের মাথায় কোপ বিজেপি কর্মীর। আক্রান্ত কাউন্সিলরের মাথায় ১৯টা সেলাই পড়েছে। ঘটনা নিয়ে তুমুল বিতণ্ডা শুরু হয়েছে বিজেপি ও তৃণমূলের মধ্যে। 

স্থানীয়রা জানিয়েছেন, শনিবার সকালে পূজালি পুরসভার ৩ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর চিন্ময় বারুইকে এক ব্যক্তি জানান স্থানীয় একজন গুরুতর অসুস্থ। তাঁর চিকিৎসার ব্যবস্থা করতে হবে। সেকথা শুনে স্কুটার নিয়ে মধ্যপাড়ায় অসুস্থ ব্যক্তির বাড়িতে হাজির হন চিন্ময়বাবু। অসুস্থ ব্যক্তির চিকিৎসার যাবতীয় নথি খতিয়ে দেখে হাসপাতালে ভর্তির তোড়জোড় শুরু করেন তিনি। তার পর সেখান থেকে রওনা দেওয়ার উদ্দেশ্যে বাইরে বেরিয়ে স্কুটারের চালু করতে যান চিন্ময়বাবু। 

অভিযোগ, ঠিক সেই সময় পিছন থেকে কাটারি দিয়ে চিন্ময়বাবুর মাথায় কোপ মারেন অসুস্থ ব্যক্তি। সঙ্গে সঙ্গে রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পড়েন তিনি। স্থানীয়রা তাঁকে হাসপাতালে নিয়ে গেলে মাথায় ১৯টা সেলাই পড়ে তাঁর। 

ঘটনায় বিজেপিকে কাঠগড়ায় তুলেছে তৃণমূল। তাদের দাবি, দলীয় কাউন্সিলরের ওপরে হামলা চালিয়েছে বিজেপি। অভিযোগ মানতে নারাজ স্থানীয় বিজেপি নেতৃত্ব। তাদের দাবি, গত পুরনির্বাচনে বিজেপির টিকিটে জয়লাভের পর ৩ দিনের মধ্যে তৃণমূলে যোগদান করেছিলেন চিন্ময়বাবু। তার পর থেকে তাঁর সঙ্গে আর কোনও সম্পর্ক নেই দলের। আক্রামণকারীর সঙ্গেও বিজেপির কোনও যোগাযোগ নেই। 

স্থানীয়দের কথায়, কাউন্সিলর হিসাবে দরাজদিল চিন্ময়বাবু। সবার বিপদে আপদে পাশে থাকেন তিনি। তাই বিজেপি কর্মীর অসুস্থ হওয়ার খবরে ছুটে এসেছিলেন তিনি। সম্ভবত দলবদলের ক্ষোভে তাঁর ওপর হামলা চালিয়েছে বিজেপি। 

 

বন্ধ করুন