বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > TMC-র ২ কাউন্সিলরের লড়াইয়ে সরগরম দক্ষিণ দমদম পুরসভা, কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ
কাউন্সিলর জয়ন্তী সাহা। ফাইল ছবি।
কাউন্সিলর জয়ন্তী সাহা। ফাইল ছবি।

TMC-র ২ কাউন্সিলরের লড়াইয়ে সরগরম দক্ষিণ দমদম পুরসভা, কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগ

  • দুই কাউন্সিলরের মধ্যে ঝামেলার সূত্রপাত মূলত দমদমের এমসি গার্ডেন রোডে অবস্থিত ভারতী বিদ্যামন্দির স্কুল নিয়ে। জয়ন্তীর অভিযোগ, স্কুলের সমস্যা সমাধানের জন্য আজ তিনি এলাকায় গেলে তাঁকে হুমকি দেওয়া হয় এবং তার অনুগামীদের ধাক্কা দেওয়া হয়।

ফের প্রকাশ্যে এল তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব। দুই কাউন্সিলরের লড়াইয়ে সরগরম হয়ে উঠেছে দক্ষিণ দমদম পুরসভা। এক তৃণমূল কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে কাজ করতে না দেওয়ার অভিযোগ তুললেন দলেরই অপর এক কাউন্সিলর। দক্ষিণ দমদম পুরসভার ১৪ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রাজু সেনশর্মার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ তুলেছেন করেছেন ১২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর জয়ন্তী সাহা। কাজে বাধা দেওয়ার পাশাপাশি ওই কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে ভয় দেখানোর অভিযোগ তুলেছেন তৃণমূল কাউন্সিলর জয়ন্তী। যদিও এই অভিযোগের কথা অস্বীকার করেছেন রাজু সেনশর্মা।

দুই কাউন্সিলরের মধ্যে ঝামেলার সূত্রপাত মূলত দমদমের এমসি গার্ডেন রোডে অবস্থিত ভারতী বিদ্যামন্দির স্কুল নিয়ে। জয়ন্তীর অভিযোগ, স্কুলের সমস্যা সমাধানের জন্য আজ তিনি এলাকায় গেলে তাঁকে হুমকি দেওয়া হয় এবং তার অনুগামীদের ধাক্কা দেওয়া হয়। তাদের কাজে বাধা দেওয়ার পাশাপশি তাদের ভয় দেখানো হয়। কাউন্সিলরের এই বিস্ফোরক অভিযোগের পরেই শুরু হয়েছে রাজনৈতিক তরজা। ইতিমধ্যেই জয়ন্তীর অনুগামীরা নাগেরবাজার থানায় রাজু সেন শর্মার বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছেন। সেই অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ স্কুল কর্তৃপক্ষের বয়ান নথিভুক্ত করেছেন। তবে এই সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করে অভিযুক্ত কাউন্সিলর জানিয়েছেন, তিনি জয়ন্তীকে ছোট বোনের মতো মনে করেন। ফলে তাকে কাজ করতে বাধা দেওয়ার কোন প্রশ্ন ওঠেনা।

এ বিষয়ে দক্ষিন দমদম পুরসভার চেয়ারম্যান কস্তুরী চৌধুরী অবশ্য কিছু বলতে চাননি। তিনি জানান, শুক্রবার পুরসভার একটি মিটিং হয়েছে। সেখানে কাউন্সিলররা ছিলেন। সেই মিটিংয়ে অবশ্য কেউ একে অপরের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানায়নি। বিষয়টি প্রকাশ্যে না আসায় এখন তিনি কিছু জানেন না। তবে এ বিষয়ে তিনি খোঁজখবর নেবেন। যদি আদৌও সেরকম কিছু হয়ে থাকে তবে সে ক্ষেত্রে ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে তিনি জানিয়েছেন।

বন্ধ করুন