বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > রানাঘাটের বরিষ্ঠ তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ আনলেন পুত্রবধূ
প্রতীকি ছবি।

রানাঘাটের বরিষ্ঠ তৃণমূল নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ আনলেন পুত্রবধূ

  • নেতার পুত্রবধূর দাবি, ১০ বছর আগে বসু পরিবারে তাঁর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই পণের দাবিতে তাঁর ওপর নিয়মিত অত্যাচার চলত। যার জেরে গত জানুয়ারি মাসে বাপের বাড়ি চলে যান তিনি।

এবার নদিয়ার হাঁসখালিতে তৃণমূলের বরিষ্ঠ নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের চেষ্টার অভিযোগ দায়ের করলেন পুত্রবধূ। তৃণমূলের রানাঘাট সাংগঠনিক জেলারওই বরিষ্ঠ নেতার বিরুদ্ধে ধর্ষণের চেষ্টার পাশাপাশি বধূ নির্যাতনের অভিযোগ দায়ের হয়েছে। অভিযোগ অস্বীকার করে ওই নেতা জানিয়েছেন, অভিযোগ ভিত্তিহীন। ওর পরিবার বিজেপি করে। রাজনৈতিক চক্রান্ত থেকে এই কাজ করে থাকতে পারে।

ওই নেতার পুত্রবধূর দাবি, ১০ বছর আগে তাঁর বিয়ে হয়। বিয়ের পর থেকেই পণের দাবিতে তাঁর ওপর নিয়মিত অত্যাচার চলত। যার জেরে গত জানুয়ারি মাসে বাপের বাড়ি চলে যান তিনি। কিছুদিন পর স্বামী তাঁকে অনুরোধ করে ফের শ্বশুরবাড়িতে নিয়ে আসেন। বধূর অভিযোগ, গত ২৩ মে তিনি যখন বাড়তে নিজের ঘরে শুয়ে ছিলেন তখন শ্বশুর তাঁর মুখ চেপে ধরেন। তাঁকে ধর্ষণের চেষ্টা করেন তিনি। কোনওক্রমে তিনি বল প্রয়োগ করে ঘর থেকে বেরিয়ে আসেন।

অভিযোগ অস্বীকার করে ওই নেতা বলেন, ওই মহিলার সঙ্গে আমার ছেলের ডিভোর্সের মামলা চলছে। ওর পরিবার বিজেপি করে। রাজনৈতিক প্রতিহিংসা থেকে আমার বিরুদ্ধে এই অভিযোগ করেছে।

বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকারের দাবি, ‘তৃণমূলের হাতে যে বাংলার মা - বোনেরা সুরক্ষিত নন তা ফের প্রমাণ করল এই ঘটনা।’

 

বন্ধ করুন