বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > শহরের বুকে থানার সামনে গাড়ি থামিয়ে তোলাবাজির অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে
প্রতীকি ছবি
প্রতীকি ছবি

শহরের বুকে থানার সামনে গাড়ি থামিয়ে তোলাবাজির অভিযোগ তৃণমূলের বিরুদ্ধে

  • তোলাবাজির অভিযোগ অস্বীকার করে সুজাতাদেবী বলেন, ‘আমরা কাউকে কোনও জোর জুলুম করছি না। কেউ খুশি হয়ে যা দিচ্ছে তাই নিচ্ছি।

শহরের কেন্দ্রস্থলে থানা থেকে ঢিল ছোড়া দূরত্বে রাস্তায় গাড়ি থামিয়ে চাঁদা আদায়ের অভিযোগ উঠল তৃণমূলের প্রাক্তন কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে। অভিযুক্ত জলপাইগুড়ির ধূপগুড়ি পুরসভার ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের প্রাক্তন কাউন্সিলর সুজাতা দে সরকার। যদিও সুজাতাদেবী জানিয়েছেন, জোর জুলুমের ব্যাপার নেই। খুশি হয়ে যে যা দিচ্ছেন নিচ্ছি।

ধূপগুড়ি থানা থেকে সামান্য দূরে সন্ধ্যা নামলেই রাস্তা আটকে চলছে চাঁদা আদায়। সুজাতাদেবীর উদ্যোগে প্রমীলাবাহিনী গাড়ি দাঁড় করিয়ে বিল কাটছেন। এই দৃশ্য দেখে হতবাক শহরের বাসিন্দারা।

স্থানীয় এক বাসিন্দার কথায়, গ্রামে গঞ্জে রাস্তায় চাঁদা আদায় হতে দেখেছি। তাও আবার খবর পেলে পুলিশ তাদের হঠিয়ে দেয়। কিন্তু শহরের বুকে এভাবে চাঁদা আদায় কোনও দিন দেখিনি। তাও আবার থানার এত কাছে। রোজ পুলিশ আধিকারিকরা ওই রাস্তা দিয়ে যাচ্ছেন। দেখতে পেয়েও তাঁরা কোনও পদক্ষেপ করছেন না। শাসকদলের নেতা বলেই কি পুলিশ চুপ?

তোলাবাজির অভিযোগ অস্বীকার করে সুজাতাদেবী বলেন, ‘আমরা কাউকে কোনও জোর জুলুম করছি না। কেউ খুশি হয়ে যা দিচ্ছে তাই নিচ্ছি। পুজো তো বছরে বারবার আসে না। সবাই মিলে একটু মজা করতেই এই উদ্যোগ।’

ওদিকে ঘটনার দায় ঝেড়ে ফেলার চেষ্টায় রয়েছে তৃণমূল। পুরসভার উপপ্রধান রাজেশ সিং বলেন, ‘ওই পুজোটিও সরকারি অনুদানের ৫০ হাজার টাকা পেয়েছে। তারা গাড়ি দাঁড় করিয়ে টাকা তুলছে এমন অভিযোগ এখনো পাইনি। অভিযোগ পেলে খতিয়ে দেখব।’

 

বন্ধ করুন