বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দু'মাসের পর তৃণমূল বলে কিছু থাকবে না, দাবি টাউন তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতির
ফাইল ছবি
ফাইল ছবি

দু'মাসের পর তৃণমূল বলে কিছু থাকবে না, দাবি টাউন তৃণমূল কংগ্রেস সভাপতির

  • পারিবারিক সম্পত্তি বিবাদকে কেন্দ্র করে বোমাবাজিতে নাম জড়াল শাসকদলের। বুধবার রাতে পুরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর দোলা দাসের বাড়ির সামনে বোমাবাজি হয় বলে অভিযোগ।

উত্তর ২৪ পরগনার খড়দহে ফের প্রকাশ্যে চলে এল তৃণমূলের গোষ্ঠীকোন্দল। পারিবারিক সম্পত্তি বিবাদকে কেন্দ্র করে বোমাবাজিতে নাম জড়াল শাসকদলের। বুধবার রাতে পুরসভার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর দোলা দাসের বাড়ির সামনে বোমাবাজি হয় বলে অভিযোগ। এর পরই পুরসভার প্রশাসক কাজল সিনহার বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন টাউন তৃণমূল সভাপতি সুকণ্ঠ বণিক। 

দোলা দেবী জানিয়েছেন, সম্প্রতি তাঁর দেওরের সঙ্গে সম্পত্তি নিয়ে কিছু বিবাদ হয়। তার জেরে ভয় দেখাতে বুধবার রাতে বাড়ির সামনে পেটো ছোড়ে তৃণমূলের কাজল সিনহার অনুগামীরা। অকথ্য গালিগালাজও করা হয়। ঘটনার খবর পেয়ে সেখানে পৌঁছয় খড়দা থানার পুলিশ। তবে এখনো কাউকে আটক বা গ্রেফতার করতে পারেনি তারা। 

খড়দহ টাউন তৃণমূল সভাপতি সুকণ্ঠ বণিকের অনুগামী বলে পরিচিত দোলা দেবীর বাড়ির সামনে বোমাবাজিতে ক্ষোভ উগরে দিয়েছেন সুকণ্ঠবাবু। তিনি বলেন, ‘কাজল সিনহার নেতৃত্বে তাঁর অনুগামীরা খড়দায় সন্ত্রাস কায়েম করতে চাইছে। মহিলাদের পুরসভায় ডেকে হুমকি দিচ্ছেন পুর প্রশাসক। মহিলাদের নানা ভাবে অসম্মান করা হচ্ছে। এসব চলতে থাকলে ২ মাসের মধ্যে খড়দায় তৃণমূল কংগ্রেস বলে কিছু অবশিষ্ট থাকবে না।’

ঘটনায় মুখ খুলেছে বিজেপি। তাদের দাবি, তৃণমূল নেতাই বলছেন, ২ মাসের মধ্যে তৃণমূল বলে কিছু থাকবে না। তাহলে বুঝুন কী পরিস্থিতি। এব্যাপারে কাজল সিনহার কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। 

 

বন্ধ করুন