বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > গুনে গুনে নিলেন ১০০ ও ৫০০ টাকার নোট, ভাইরাল TMC নেত্রীর 'কাটমানি' কীর্তি
‘কাটমানি’ অভিযোগে বিদ্ধ হল তৃণমূল কংগ্রেস। (ছবি সৌজন্য ভিডিয়ো)
‘কাটমানি’ অভিযোগে বিদ্ধ হল তৃণমূল কংগ্রেস। (ছবি সৌজন্য ভিডিয়ো)

গুনে গুনে নিলেন ১০০ ও ৫০০ টাকার নোট, ভাইরাল TMC নেত্রীর 'কাটমানি' কীর্তি

  • দেখে নিন সেই ভিডিয়ো।

‘কাটমানি’ অভিযোগে বিদ্ধ হল তৃণমূল কংগ্রেস। ভাইরাল ভিডিয়োয় (সত্যতা যাচাই করেনি হিন্দুস্তান টাইমস বাংলা) শাসক দলের পঞ্চায়েত সদস্যকে টাকা নিতে দেখা গিয়েছে বলে দাবি করা হয়েছে। ভিডিয়োটি সত্যি হলে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে তৃণমূল। ঘটনাটি হুগলির চণ্ডীতলার।

সম্প্রতি একটি ভাইরাল ভিডিয়োয় দেখা গিয়েছে, এক মহিলা টাকা গুনছেন। ভিডিয়োয় যে মহিলাকে দেখা গিয়েছে, তিনি হুগলির চণ্ডীতলার ২ ব্লকের জনাই গ্রাম পঞ্চায়েতের সদস্য এসমাতারা বেগম বলে দাবি করা হয়েছে। প্রথমে ১০০ টাকার নোটের বান্ডিল গুনেছেন। তারপর কয়েকটি ৫০০ টাকার নোটও গুনে নিয়েছেন। অপর প্রান্তে বসেছিলেন এক ব্যক্তি। যিনি প্রশ্ন করেন, টাকা দেওয়ার জন্য কোনও রশিদ মিলবে না? পরে কিছু দেখাতে হবে না? ভিডিয়োয় মহিলাকে বলতে শোনা গিয়েছে, একটার বেশি কথা বলবে না। শুধু বলবে, সদস্য কাগজ করে দিয়েছে। পরদিন সকাল ৯ টা ৩০ মিনিট নাগাদ ওই ব্যক্তি তৈরি হয়ে থাকতেও বলেন। সেইসঙ্গে মহিলাকে আবার বলতে শোনা গিয়েছে, রেকর্ডিং করছ না তো?

বিজেপি ও সিপিআইএমের অভিযোগ, ইন্দিরা আবাস যোজনায় বাড়ি তৈরির জন্য 'কাটমানি' নিচ্ছিলেন এসমাতারা। অপর একটি মহলের দাবি, অবৈধ নির্মাণে ছাড়পত্র দেওয়ার জন্য 'কাটমানি' নেওয়া হচ্ছিল। বিষয়টি নিয়ে অভিযুক্ত পঞ্চায়েত সদস্যের কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি। তবে মুখ খুলেছেন তৃণমূলের হুগলি জেলা সভাপতি স্নেহাশিস চক্রবর্তী। ভিডিয়োটি যাচাইয়ের আশ্বাস দিয়েছেন। স্নেহাশিস জানিয়েছেন, ভিডিয়ো সত্যি হলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া ববে। এমন কাজ করলে তৃণমূলে রেহাই পাওয়া যাবে।

বন্ধ করুন