বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > জন্মদিনের উপহার স্বরূপ বিধায়ককে মেয়র পদ দিলেন তৃণমূল নেত্রী
বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়

জন্মদিনের উপহার স্বরূপ বিধায়ককে মেয়র পদ দিলেন তৃণমূল নেত্রী

তিনি জানান, আসানসোলের সব বাড়িতে পরিস্রুত পানীয় জল পৌঁছে দেওয়াকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে।

‌আসানসোল পুরনিগমে মেয়র পদে বেছে নেওয়ার ক্ষেত্রে চমক দিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মেয়র করলেন বারাবনীর তিন বারের বিধায়ক বিধান উপাধ্যায়। জন্মদিনের দিন দলের তরফে গুরু দায়িত্ব পাওয়ার পর স্বভাবতই উচ্ছ্বসিত তৃণমূলের এই বিধায়ক।

আসানসোলের মেয়র হিসাবে দায়িত্ব পাওয়ার পর দলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে কৃতজ্ঞতা জানিয়ে বারাবনীর বিধায়ক জানান, ‘‌জন্মদিনে দিদি আমাকে আশীর্বাদ করলেন। দলের একটি কর্মসূচিতে যাচ্ছিলাম। তখনই খবর পেলাম। দলের নির্বাচনী ইস্তাহারে যে যে প্রতিশ্রুতি দেওয়া হয়েছে, সেগুলি পূরণ করার চেষ্টা করব।’‌ উল্লেখ্য, এবারের পুরনিগম ভোটে বারাবনীর বিধায়ক বিধান উপাধ্যায় নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেননি। নির্বাচনের আগে এলাকায় ভোটের প্রচারে বেরিয়েছিলেন ঠিকই। কিন্তু ভোটে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেননি। ফলে মেয়র হিসাবে দায়িত্ব নেওয়ার ৬ মাসের মধ্যে বিধানবাবুকে কোনও একটি ওয়ার্ড থেকে জিতে আসতে হবে।

মেয়র হিসাবে দায়িত্ব নেওয়ার পর কোন কাজে অগ্রাধিকার দিতে চান বিধানবাবু। তিনি জানান, আসানসোলের সব বাড়িতে পরিস্রুত পানীয় জল পৌঁছে দেওয়াকে অগ্রাধিকার দেওয়া হবে। নির্বাচনের আগে আসানসোলের মেয়র কে হবেন, তা নিয়ে দলের অন্দরে চর্চা শুরু হয়ে যায়। মেয়র পদের দৌড়ে রাজ্যের মন্ত্রী মলয় ঘটকের স্ত্রী অভিজিৎ ঘটক, অমর চট্টোপাধ্যায় সহ বেশ কয়েকজনের নাম উঠে আসছিল। কিন্তু এদের সবাইকে পিছনে ফেলে বারাবনীর বিধায়ককেই মেয়র হিসাবে বেছে নিলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

বন্ধ করুন