বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > প্রথমে ধারালো অস্ত্রের কোপ,তারপর গুলি,বসিরহাটে নৃশংস ভাবে খুন দাপুটে তৃণমূল নেতা
ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই
ফাইল ছবি, সৌজন্য পিটিআই

প্রথমে ধারালো অস্ত্রের কোপ,তারপর গুলি,বসিরহাটে নৃশংস ভাবে খুন দাপুটে তৃণমূল নেতা

  • পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রথমে মোফাজ্জলকে এলোপাথাড়ি কোপ চালানো হয় ধারালো অস্ত্রের। তারপর মৃত্যু নিশ্চিত করতে মোফাজ্জলের মাথায় ও বুকে গুলি করা হয়।

বসিরহাটে নৃশংস ভাবে খুন করা হল তৃণমূলের দাপুটে নেতা মোফাজ্জল হক ওরফে আকু-কে। বসিরহাট মহকুমার মাটিয়া থানার চাঁপাপুকুর গ্রাম পঞ্চায়েতের রাজাপুর বাজারে ঘটনাটি ঘটে গতকাল রাতে। রাত সাড়ে ১০টা নাগাদ দুষ্কৃতীরা হামলা চালায় মোফাজ্জলের উপর। পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রথমে মোফাজ্জলকে এলোপাথাড়ি কোপ চালানো হয় ধারালো অস্ত্রের। তারপর মৃত্যু নিশ্চিত করতে মোফাজ্জলের মাথায় ও বুকে গুলি করা হয়।

জানা গিয়েছে, এই হত্যাকাণ্ডে প্রায় ৮ থেকে ১০ জন সশস্ত্র দুষ্কৃতী জড়িত। গাড়ি করে এই দুষ্কৃতীরা এসে বাইকে থাকা মোফাজ্জলের উপর হামলা করে। মোফআজ্জলের সঙ্গে সেই সময় আরও এক তৃণমূল কর্মী ছিলেন। হাফিজুর গাজি নামক সেই তৃণমূল কর্মী এই হামলা জখম হয়েছেন।

হত্যাকাণ্ডের পর ঘটনাস্থল থেকে দুষ্কৃতীরা পালালে সেখানে পৌঁছান স্থানীয় বাসিন্দারা। এরপর খবর দেওয়া হয় মাটিয়া থানার পুলিশকে। রক্তাক্ত অবস্থায় মোফাজ্জলকে উদ্ধার করা হয়। বসিরহাট জেলা হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে সেই তৃণমূল কর্মীর মৃত্যু হয়। উল্লেখ্য, কয়েক বছর আগেও এই তৃণমূল নেতা দুষ্কৃতীদের হামলার শিকার হয়েছিল। সেই যাত্রায় অবশ্য বেঁচে গিয়েছিলেন মোফাজ্জল। তবে এবার শেষ রক্ষা হল না। দুষ্কৃতীদের হাতে মৃত্যু হল তাঁর। এই ঘটনার তদন্তে নেমেছে মাটিয়া থানার পুলিশ।

বন্ধ করুন