বাংলা নিউজ > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > খড়গপুরে পথসভা ঘিরে উত্তেজনা, যুব তৃণমূল নেতাকে চড় দলেরই মুখপাত্রের
শনিবার রাতে খড়গপুরে তৃণমূলের সভায় ছড়ায় উত্তেজনা। 
শনিবার রাতে খড়গপুরে তৃণমূলের সভায় ছড়ায় উত্তেজনা। 

খড়গপুরে পথসভা ঘিরে উত্তেজনা, যুব তৃণমূল নেতাকে চড় দলেরই মুখপাত্রের

  • অতনুবাবু দাবি, মুনমুনবাবুর বাড়ির সামনে সভা হলেও কেন তাঁর অনুমতি নেওয়া হয়নি তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে চড়াও হন তিনি। সভার সাউন্ড সিস্টেম খুলে ফেলেন। আক্রমণ করেন অতনুবাবু-সহ হাজির অন্যান্য তৃণমূল নেতাদের।

দলনেত্রীর সভার আগেও বিরাম নেই তৃণমূলের গোষ্ঠীদ্বন্দ্বে। খাস খড়গপুর শহরে তৃণমূলের যুব নেতাকে চড় মারার অভিযোগ জেলা তৃণমূলের মুখপাত্রের বিরুদ্ধে। ঘটনাকে কেন্দ্র করে শনিবার সন্ধ্যায় উত্তেজনা ছড়ায় খড়গপুর শহরের ৯ নম্বর ওয়ার্ডে। 

শুভেন্দু জমানাকে অতীত করে সোমবার থেকে মেদিনীপুরে নতুন পথে চলা শুরু করতে চলেছে তৃণমূল। খড়গপুর শহরে জনসভা করে সেই পথের দিশানির্দেশ দেবেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু তার আগেও দলে জারি রইল গোষ্ঠীকোন্দল। শনিবার সন্ধ্যায় খড়গপুরের ৯ নম্বর ওয়ার্ডে যুব তৃণমূলের উদ্যোগে আয়োজন করা হয় এক পথসভার। অভিযোগ সভা চলাকালীন দলবল নিয়ে সেখানে হাজির হন জেলা তৃণমূলের মুখপাত্র দেবাশিস চৌধুরী ও মুনমুন। সভা বন্ধ করতে বলেন তিনি। রাজি না হলে চড় মারেন যুব তৃণমূল নেতা অতনু রায়চৌধুরীকে। অন্যান্য তৃণমূল নেতাদের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন তিনি। 

অতনুবাবু দাবি, মুনমুনবাবুর বাড়ির সামনে সভা হলেও কেন তাঁর অনুমতি নেওয়া হয়নি তা নিয়ে প্রশ্ন তুলে চড়াও হন তিনি। সভার সাউন্ড সিস্টেম খুলে ফেলেন। আক্রমণ করেন অতনুবাবু-সহ হাজির অন্যান্য তৃণমূল নেতাদের। 

ঘটনা নিয়ে জেলা তৃণমূল সভাপতি অজিত মাইতি বলেন, ‘ঘটনার খবর শুনেছি। দুপক্ষকে নিয়ে আলোচনায় বসব। দলে বিশৃঙ্খলা বরদাস্ত করা হবে না।’

 

বন্ধ করুন