বাড়ি > বাংলার মুখ > অন্যান্য জেলা > দুর্নীতি করে পকেটে ভরা টাকা ফেরত দিয়ে সাধু সাজতে চাইছে তৃণমূল, দাবি বিজেপির
ভুল স্বীকার করে জমা দেওয়া সেই চিঠি
ভুল স্বীকার করে জমা দেওয়া সেই চিঠি

দুর্নীতি করে পকেটে ভরা টাকা ফেরত দিয়ে সাধু সাজতে চাইছে তৃণমূল, দাবি বিজেপির

  • সোমবার বনগাঁর ঘটিবাঁওড় পঞ্চায়েতের তৃণমূল সদস্যরা সরকারি ফর্মে নিজেদের ‘ভুল স্বীকার’ করে ত্রাণের টাকা বিডিওকে ফেরত দেন। স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, শীর্ষ নেতৃত্বের নির্দেশে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে তারা।

রবীন্দ্রনাথের নিরুপমাকে মরে প্রমাণ করতে হয়েছিল যে সে মরেনি। পশ্চিমবঙ্গে তৃণমূল ত্রাণের টাকা ফেরত দিয়ে প্রমাণ করল সত্যিই তারা দুর্নীতি করেছিল। অন্তত এমনটাই দাবি বিজেপির। সোমবার বনগাঁর ঘটিবাঁওড় পঞ্চায়েতের কয়েজন তৃণমূল সদস্য আমফানের ত্রাণবাবদ পাওয়া ২০,০০০ টাকা চেকের মাধ্যমে বিডিওকে ফেরত দেন। যদিও বিজেপির দাবি, এভাবে দুর্নীতি আড়াল করার চেষ্টা করছে তৃণমূল। দোষীদের সত্যিই শাস্তি দেওয়ার সদিচ্ছা থাকলে জেলে পাঠাত তারা। 

সোমবার বনগাঁর ঘটিবাঁওড় পঞ্চায়েতের তৃণমূল সদস্যরা সরকারি ফর্মে নিজেদের ‘ভুল স্বীকার’ করে ত্রাণের টাকা বিডিওকে ফেরত দেন। স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের দাবি, শীর্ষ নেতৃত্বের নির্দেশে এই পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে তারা। ত্রাণের টাকা ফেরত নেওয়ার দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে ব্লক ডিজাস্টার ম্যানেজমেন্ট অফিসারকে।

ত্রাণের টাকা ফেরত দিলেও তৃণমূলকে ছাড়তে রাজি নয় বিজেপি। তাদের দাবি, এসব করে মানুষের চোখে ধুলো দিতে চাইছে তৃণমূল। বিজেপি নেতা দেবদাস মণ্ডল বলেন, জনরোষের মুখে দুর্নীতি করে পকেটে ভরা টাকা ফেরত দিতে বাধ্য হয়েছে তৃণমূল। আর এভাবে তারা মহান সাজার চেষ্টা করছে। কিন্তু চোরেদের কোনও শাস্তির ব্যবস্থা করেনি শাসকদল। এর পর যে কোনও চোর ধরা পড়ার পর চুরির মাল ফেরত দিয়ে বেকসুর খালাস পেতে চাইবে। তা কখনো হয় না কি? 

দেবদাসবাবুর কথায়, মরণকালে ভগবানের নাম জপে লাভ হবে না তৃণমূলের। তাদের বিদায় ঘণ্টা বেজে গিয়েছে।

বন্ধ করুন